২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এ্যান্ডি মারের শিরোপা জোকোভিচকে হারিয়ে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ তারকা নোভাক জোকোভিচকে পরাজিত করে এটিপি মন্ট্রিয়েল মাস্টার্সের শিরোপা জিতেলেন এ্যান্ডি মারে। সার্বিয়ান তারকার বিপক্ষে টানা আট ম্যাচ পর জয়ের মুখ দেখলেন ব্রিটিশ এই তারকা। রবিবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে তিনি ৬-৪, ৪-৬ এবং ৬-৩ গেমে পরাজিত করেন জোকোভিচকে। সেই সঙ্গে তৃতীয়বারের মতো মন্ট্রিয়েল মাস্টার্সের শিরোপা নিজের শোকেসে তুলেন তিনি।

শিরোপার পাশাপাশি কোচ এমিলি মরেসমোর মা হওয়ার সুসংবাদটিও দিয়েছেন মারে। বিশ্বের শীর্ষ বাছাই কোন পুরুষ খেলোয়াড়ের একমাত্র মহিলা কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন সাবেক ফ্রেঞ্চ তারকা মরেসমো। ম্যাচ শেষে নিজের মেন্টরের কথা বলতে গিয়ে উচ্ছ্বসিত মারে বলেন, মা এবং ছেলের ছবি তারা ইন্টারনেটের মাধ্যমে দেখেছেন, দুজনেই সুস্থ আছে। এর চেয়ে বেশি কিছু অবশ্য তিনি বলতে পারেননি। তবে এই জয়কে মরেসমোর প্রতি উৎস্বর্গ করতে ভুল করেননি স্কটিশ তারকা। মরেসমো না থাকলেও প্লেয়ার বক্স থেকে সহকারী কোচ জেনাস বিয়র্কম্যানের সতর্ক দৃষ্টি ছিল মারের ওপর। তিন ঘণ্টার দারুণ এক লড়াই শেষে প্রায় দুই বছরেরও বেশি সময় পরে জোকোভিচের বিপক্ষে প্রথম জয় পেলেন তিনি। ২০১৩ সালে সর্বশেষ উইম্বল্ডনের ফাইনালে সার্বিয়ান তারকার বিপক্ষে জয় পেয়েছিলেন টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বার তারকা মারে। ম্যাচ শেষে তাই রোমাঞ্চিত মারে বলেন, ‘যে কোন শিরোপাই আনন্দের, বিশেষ করে এই ধরনের ম্যাচে এবং প্রতিপক্ষ যদি থাকে জোকোর মতো কোন খেলোয়াড়। একটি সেট হারার পরে ম্যাচটা কঠিন হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু নিজের পারফর্মেন্সের উপর গুরুত্ব দিয়ে তৃতীয় সেটে সঠিক সময়ে সঠিক শটগুলো খেলতে পেরেছি।’ এর আগে ২০০৯ ও ২০১০ সালে কানাডিয়ান এই মাস্টার্সের শিরোপা জিতেছিলেন মারে। দীর্ঘদিন পরে মারের কাছে পরাজয়ের পর হতাশ জোকোভিচ। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘পরাজয় কখনই সুখকর নয়। কিন্তু যে কোন কিছুরই শেষ আছে। আমার ডান কনুইয়ে কিছুটা সমস্যা দেখা দিয়েছিল। গত সপ্তাহে চিকিৎসা করিয়েছি। আগামীতে সেরাটা দেয়ার আশা করছি। আমি ভাল খেলোয়াড়ের বিপক্ষে হেরেছি। মারেকে আমি খুব ভালভাবে চিনি। শেষ পয়েন্ট পর্যন্ত আমি লড়াই করেছি এবং সর্বোচ্চটা দেয়ার চেষ্টা করেছি। এটাই এই ম্যাচে আমার জন্য ইতিবাচক দিক। এই শিরোপাটা এ্যান্ডির প্রাপ্য। সে বেশ কয়েকটি ভাল শট খেলেছে। বিশেষ করে তার সার্ভিস দুর্দান্ত ছিল।’ মারে এখন পর্যন্ত ১১ মাস্টার্স ১০০০ ও সব মিলিয়ে ৩৫ শিরোপা জিতেছেন। একই সঙ্গে জোকোভিচ এই হারের মাধ্যমে নিজের ২৫তম শিরোপা থেকে বঞ্চিত হলেন।