২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

’১৯ সালের মধ্যেই হবে সুখী সমৃদ্ধ দেশ ॥ নাসিম

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ ২০১৯ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি সুখী সমৃদ্ধ দেশে পরিণত হবে। সে লক্ষ্যে পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে। যে বিশ্বব্যাংক একদিন মিথ্যা অজুহাতে পদ্মা সেতুর অর্থায়ন বাতিল করেছিল সেই বিশ্বব্যাংকই এ স্বীকৃতি দিয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সোমবার দুপুরে নগরীর আগ্রাবাদে পরিবার পরিকল্পনা ভবন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। তিনি পরিবার ছোট রাখতে উদ্বুদ্ধ রাখার জন্য মাঠে ময়দানে কাজ করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মচারীদের প্রতি আহ্বান জানান। মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ছোট্ট একটি দেশ, যার জনসংখ্যা ১৬ কোটি। সে তুলনায় সম্পদ কম। সীমিত সম্পদ দিয়ে দেশকে উন্নয়নের পথে নিয়ে যেতে হলে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। তিনি বলেন, দেশের কোথাও এ বিভাগের কোন নিজস্ব ভবন ছিল না। চট্টগ্রামেই প্রথম ভবন হলো। এটি বড় ধরনের একটি অগ্রগতি। পর্যায়ক্রমে দেশের বিভিন্ন জেলায় পরিবার পরিকল্পনা ভবন তৈরি করা হবে।

বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকা- প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, বিদ্যুত, সড়ক যোগাযোগসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নতি সাধিত হয়েছে। শিশুমৃত্যু ও মাতৃমৃত্যু হার কমেছে। এ জন্য আমরা বিশ্বে পুরষ্কৃত হয়েছি। আমরা দারিদ্র্য বিমোচন এবং জঙ্গী দমন করেছি। স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে অনেক ডাক্তার নিয়োগ করেছি। শিক্ষার হার বাড়াতে ও নিরক্ষরতা দূরীকরণে বিনামূল্যে বই দেয়া হচ্ছে। ২০১৯ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে সুখী সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার প্রত্যয় ব্যক্ত করে মন্ত্রী এ লক্ষ্যে সকলকে একযোগে কাজ করার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেনÑ গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, সংসদ সদস্য এম এ লতিফ, সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং পরিবার পরিকল্পনা অধিদফতরের পরিচালক নুর হোসেন তালুকদার।

চট্টগ্রামে নাশকতার মামলায় গ্রেফতার ৮৪

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম নগরী ও জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে জামায়াত-শিবিরের দুই কর্মীসহ ৮৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রবিবার রাতে ও সোমবার সকেলে এ অভিযান পরিচালিত হয়। গ্রেফতারকৃতরা নাশকতা, সহিংসতা ও সন্ত্রাসসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকা-ের মামলার আসামি।

জানা যায়, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর ইপিজেড থানার কলসি দীঘির এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় ১৫ মামলার আসামি ছাত্রশিবিরের কর্মী খোরশেদুল আলমকে (৩২)। আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ২০১৩ সালে জামায়াত নেতা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায়ের পর সাতকানিয়া উপজেলায় নাশকতা ও পুলিশের উপর যে হামলার ঘটনা ঘটেছিল তার নেতৃত্বে ছিল এই খোরশেদ।

এদিকে, চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত সুপার নাঈমুল হাসান জানান, গত রবিবার রাতে বিভিন্ন উপজেলায় পরিচালিত বিশেষ অভিযানে জামায়াতের এক কর্মীসহ মোট ৮৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযানে উদ্ধার করা হয় ৫৩ লিটার চোলাই মদ। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৮ জন নিয়মিত মামলায় এবং ৭৪ জন সাজা পরোয়ানাভুক্ত আসামি। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।