২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রথম সংবিধান ছাপানো মুদ্রণ যন্ত্র পেল জাতীয় জাদুঘর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সংবিধান ছাপানো মুদ্রণ যন্ত্রটি পেল জাতীয় জাদুঘর। তেজগাঁও বিজি প্রেস প্রাঙ্গণে সোমবার বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে সেই যন্ত্রটি হস্তান্তর হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ও ভারপ্রাপ্ত সচিব আকতারী মমতাজ। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরীর সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন সময়ের মুদ্রণ কারিগরি মোঃ আবু সাঈদ, জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ড. ফয়জুল লতিফ চৌধুরী ও বিজি প্রেসের মহাপরিচালক এ কে এম মনজুরুল হক।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘পশ্চিমা দেশগুলোতে ইতিহাস ও ঐতিহ্য সংরক্ষণ করা এবং জনগণের সামনে তা তুলে ধরা সে দেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজেরই একটি অংশ। আমাদের দেশে বিগত সময়ে এ বিষয়টি তেমন গুরুত্ব না পেলেও বর্তমান সময়ে দেখা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে। তারাই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের ইতিহাসের সাক্ষ্য হিসেবে এটাকে সংরক্ষণ করা হয়েছে।’

সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, ‘আপাত দৃষ্টিতে মনে হতে পারে একটি মৃতপ্রায় যন্ত্র কিন্তু ইতিহাসের কাছে এর মূল্য অনেক। আর সে বিবেচনায় আমরা জাদুঘরে ইতিহাসের এই সাক্ষীকে নিতে সম্মত হয়েছি।’

প্রসঙ্গত, ১৯৭২ সালে প্রণীত হয় বাংলাদেশের প্রথম সংবিধান। তৎকালীন তথ্য মন্ত্রণালয়ে নিযুক্ত কর্মকর্তা মরহুম একে এম আব্দুর রউফ এটি প্রথম হাতে লেখেন। পরবর্তীতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীন বিজি প্রেসে এটি ছাপানো হয়। প্রথম মুদ্রণ যন্ত্রটির নাম ‘ক্র্যাবট্রি ডাবই ডিমাই টু কালার অফসেট প্রেস’ যা আমদানি করা হয় ১৯৫২ সালে এবং এটি মুদ্রণ কাজে ব্যবহৃত হয় ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত। এটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ছিল মেসার্স আর-হু এ্যান্ড ক্র্যাবট্রি লিমিটেড ইংল্যান্ড। সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ছিল মেসার্স ইন্দো সুইস ট্রেডিং কোম্পানি লিমিটেড। এর মূল্য ছিল চুয়াত্তর হাজার আট শ’ চল্লিশ টাকা তেতাল্লিশ পয়সা।