২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাকা দক্ষিণের সড়ক উন্নয়নসহ ৬ প্রকল্প অনুমোদন

  • একনেক বৈঠক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ রাজধানীর ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের রাস্তা ও অন্যান্য অবকাঠামো উন্নয়নসহ ৬ প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) এ অনুমোদন দেয়। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৯৬১ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারী তহবিলের ৩ হাজার ৮১৪ কোটি ৯৪ লাখ এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ১৪৭ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে। মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান, পরিকল্পনা সচিব শফিকুল আজম, পরিংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব কানিজ ফাতেমা এবং পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য আরাস্তু খান, হুমায়ুন খালিদ, আইএমইডির সচিব সহিদ উল্লা খন্দকার ও সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (সিনিয়র সচিব) ড. শামসুল আলম এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুটি অনুশাসন দিয়েছেন। এগুলো হচ্ছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে অনুমোদিত প্রকল্পটি বাস্তবায়নের সময় সুয়্যারেজ সিস্টেম যাতে অত্যন্ত ভাল হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে এবং আরও বেশি করে উন্নতমানের বীজ উৎপাদন করে তা কৃষকদের মাঝে সরবরাহ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, পদ্মা সেতুর রেল লাইনটির ঢাকা-মাওয়া-জাজিরা-ভাঙ্গা এবং ভাঙ্গা হয়ে যশোর সংযোগ লাইনে যুক্ত হবে। এ রুটের মাধ্যমে যোগাযোগের জন্য বর্তমানে পরিত্যক্ত কালুখালী-ভাটিয়াপাড়া সেকশনটি চালু করা প্রয়োজন। এ ছাড়া জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মস্থান ও সমাধিস্থল টুঙ্গিপাড়া উপজেলাকে বিদ্যমান রেলওয়ে নেটওয়ার্কের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে কাশিয়ানী থেকে গোপালগঞ্জ হয়ে টুঙ্গিপাড়া পর্যন্ত রেল লাইন স্থাপন করা প্রয়োজন যাতে করে এ এলাকাটি বাংলাদেশ রেলওয়ের বিদ্যমান এবং ভবিষ্যৎ রেল নেটওয়ার্কের সঙ্গে সংযুক্ত হতে পারে। এ লক্ষ্যে কালুখালী-ভাটিয়াপাড়া সেকশন পুনর্বাসন এবং কাশিয়ানী গোপালগঞ্জ-টুঙ্গিপাড়া নতুন রেলপথ নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পটি নেয়া হয়েছে।