১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পরমাণু যুদ্ধ থামিয়েছিল ভিনগ্রহবাসী!

পরমাণু যুদ্ধ থামিয়েছিল ভিনগ্রহবাসী!

ভিনগ্রহবাসীর অস্তিত্ব নিয়ে এখনও জল্পনাকল্পনা রয়েছে। মহাকাশ বিজ্ঞানের মহাযজ্ঞের এ যুগেও এ বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। কেউ কেউ এলিয়েন তথা ভিনগ্রহবাসীর অস্তিত্বের কথা নানা যুক্তিতর্ক দিয়ে বোঝাতে চাইলেও এখনও পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এমন পরিস্থিতিতে নভোযান এ্যাপেলোÑ ১৪ এর মহাকাশচারী এডগার মিচেলের দাবি যেন এ ধারণাকে পাকাপোক্ত করছে। মিচেল আজব এক দাবি করছেন। তিনি বলছেন, নব্বইয়ের দশকে সোভিয়েত ইউনিয়ন ও যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে স্নায়ুযুদ্ধ চলাকালে যে পরমাণু যুদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল তার মীমাংসা করেছিল ভিনগ্রহবাসী। রসওয়েলে পরমাণু পরীক্ষাকেন্দ্রের সামনে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম হয় এডগার মিচেলের। নিজের মেধার জোরেই মহাকাশ বিজ্ঞানী হন তিনি। মিচেল ১৯৭১ সালে নভোচারী হিসেবে চাঁদে গিয়েছিলেন। এ্যাপেলোÑ ১৪ এর ষষ্ঠ যাত্রী ছিলেন তিনি। এমন এক নভোচারীর এই দাবি হেসে উড়িয়ে দিতে পারছেন না অনেকেই। তিনি বলছেন, তার সঙ্গে এ বিষয়ে ভিনগ্রহের প্রাণীর কথাও হয়েছে। মার্কিন একটি পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, আর একটু হলে পরমাণু যুদ্ধ বেধেই যেত। যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়নের মধ্যে হতে চলা পরমাণু যুদ্ধ থামাতে পৃথিবীতে এসেছিল অন্য গ্রহের বাসিন্দা। আমার সঙ্গে তাদের কথা হয়েছে। তারা পৃথিবীতে শান্তি চায়। তারা বার বার যুদ্ধের বিরোধী। ওয়েবসাইট