২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারী লাঞ্ছনার অভিযোগে কারাগারে মার্কিন অভিনেতা

অনলাইন ডেস্ক ॥ সানড্যান্স চলচ্চিত্র উৎসব চলাকালীন এক নারী কর্মীকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে ১৫ দিনের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে ‘ইনটু দ্য ওয়াইল্ড’ খ্যাত অভিনেতা এমিল হার্শকে।

ইন্ডিয়া টুডে বলছে, ঘটনাটি ঘটে চলতি বছরের জানুয়ারিতে। ২৫ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ শহরের এক নাইটক্লাবে প্যারামাউন্ট স্টুডিওর নারী কর্মী ড্যানিয়েল বার্নফিল্ডের গলা চেপে ধরেন হাশর্।

সোমবার ১৭ অগাস্ট তাকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত। নারী লাঞ্ছনার অভিযোগে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের সম্ভাবনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ১৫ দিনের শাস্তি পান এই অভিনেতা।

উটাহ আদালতের মুখপাত্র ন্যান্সি ভলমার গণমাধ্যমকে জানান, সোমবার সামিট কাউন্টি জেলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে হার্শকে। কারাদণ্ড ছাড়াও ৪ হাজার ৭৫০ ডলার জরিমানা দিতে হবে তাকে, আর থাকছে ৫০ ঘণ্টা সামাজিক সেবামূলক কাজ।

আদালতের নথিপত্র অনুযায়ী, ঘটনার দিন রাত তিনটার দিকে মাতাল অবস্থায় ড্যানিয়েলকে লাঞ্ছিত করেন ৩০ বছর বয়সী এই অভিনেতা। পেছন থেকে গলা চেপে ধরে ড্যানিয়েলের শ্বাসরোধ করে ফেলেন তিনি।

হার্শের আইনজীবী জানান, সেদিন মাত্রাতিরিক্ত মদ্যপানের ফলে অনিচ্ছাকৃতভাবে এই ঘটনা ঘটান তিনি, যা তার স্মৃতিতে নেই। তার আইনজীবী আরও বলেন, এরপর মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি হয়েছিলেন হার্শ।সোমবার কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে ড্যানিয়েলের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন এই অভিনেতা।

২০০৭ সালে শন পেন পরিচালিত ‘ইনটু দ্য ওয়াইল্ড’-এ অভিনয় করে দর্শকের নজরে আসেন এমিল হার্শ। এরপর তিনি অভিনয় করেছেন ‘মিল্ক’, ‘দ্য লোন সারভাইভার’-এর মতো সিনেমায়।