১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইয়েমেনে সংঘাতে চার শ’ শিশু নিহত

  • জাতিসংঘ শিশু সংস্থার নতুন রিপোর্ট

ইয়েমেনে সংঘাতে মার্চের শেষদিক থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ৪শ’ শিশু নিহত হয়েছে এবং সশস্ত্র গ্রুপগুলো প্রায় এ সংখ্যক শিশু সংগ্রহ করেছে লড়াইয়ের জন্য। জাতিসংঘ শিশু সংস্থার এক নতুন রিপোর্টে এ তথ্যের উল্লেখ করা হয়েছে। রিপোর্টে সতর্কতা উচ্চারণ করে বলা হয়েছে, সহিংসতা বন্ধে কোন প্রস্তাব গ্রহণের আভাস পাওয়া যাচ্ছে না। খবর ওয়েবসাইটের।

ইয়েমেন বিষয়ে ইউনিসেফ এই প্রথম এ ধরনের সতর্কতা উচ্চারণ করল। সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট মার্চের শেষদিক থেকে শিয়া হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে। এ সংঘাতে আটকা পড়েছে লাখ লাখ মানুষ। ত্রাণ গ্রুপগুলো সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, অনেক মানুষ অনশনের দ্বারপ্রান্তে এসে পৌঁছেছে।

ইউনিসেফ বলেছে, শিশুরা যে সকল মৌলিক সেবার ওপর নির্ভরশীল তা বহুলাংশে ভেঙ্গে পড়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ৩শ’ ৯৮ শিশু নিহত হয়েছে, ৩শ’ ৭৭ শিশুকে লড়াইয়ের জন্য সংগ্রহ করা হয়েছে এবং ১৩ লাখ মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়, নিহতের সংখ্যা আরও বেশি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। জাতিসংঘ মানবাধিকার সংস্থার অফিস থেকে মঙ্গলবার বলা হয় লড়াইয়ে এ পর্যন্ত অন্তত ১ হাজার ৯শ’ ৫০ জন বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। ৭ বছর বয়সের শিশু নাদা নুসিরের উদ্ধৃতি দিয়ে রিপোর্টে বলা হয়, ৪ বছর বয়সী আবদুলকে আড়াল থেকে গুলি করে হত্যা করা হয়, কিন্তু তার মতো মৃত্যু আমি চাই না। মানবাধিকার গ্রুপগুলো উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, দু’পক্ষই যুদ্ধের আইন লঙ্ঘন করছে এবং বেসামরিক লোকদের রক্ষায় তেমন কিছু করছে না। এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এ সপ্তাহে সিরিয়ায় যুদ্ধাপরাধ তদন্তে একটি কমিশন গঠনের জন্য জাতিসংঘের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। জাতিসংঘ ও ত্রাণ গ্রুপগুলো ইয়েমেনে খাদ্য জ্বালানি, ওষুধ ও অন্যান্য সরবরাহ পাঠানোর উপায় বের করার জন্য আহ্বান জানিয়েছে বারবার। আকাশ ও সমুদ্র পথে ত্রাণ পরিবহনের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করেছে জোট। অন্যদিকে ইয়েমেনের নির্বাসিত সরকার ত্রাণ ছিনতাইয়ের জন্য অভিযুক্ত করছে হুতিদের।