২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দুই কোটি টাকার বিদ্যুত লাইন ১৪ কোটিতে

  • কলাপাড়া বাইপাস সংযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলাপাড়া, ১৯ আগস্ট ॥ পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধানখালীতে ২ কোটি টাকার একটি বাইপাস বিদ্যুত লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে প্রায় ১৪ কোটি টাকায়! যেখানে ১০ কিলোমিটার লাইন নির্মাণের মধ্য দিয়ে বিদ্যুত সরবরাহ সম্ভব হলেও অজ্ঞাত কারণে ৬০ কিলোমিটার লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অবহিত করা হলেও এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।

পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুত সমিতির একটি সূত্রে জানা গেছে, কলাপাড়া উপজেলার ধানখালীতে নর্থ ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি ১৩২০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পায়রা তাপবিদ্যুত উৎপাদন কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শুরু করছে। এ তাপবিদ্যুত কেন্দ্রের নির্মাণকালে দুই মেগাওয়াট বিদ্যুত সংযোগ প্রয়োজন হওয়ায় ওজোপাডিকো লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান পটুয়াখালী ৩৩ কেভি বিদ্যুতের গ্রিড লাইন থেকে কলাপাড়ার ধানখালী তাপবিদ্যুত কেন্দ্র পর্যন্ত প্রায় ৬০ কিলোমিটার বাইপাস বিদ্যুত লাইন নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে। ইতোমধ্যে খুঁটিসহ লাইন নির্মাণের অন্যান্য সামগ্রী নিয়ে আসা হয়েছে। এখানে প্রতি কিলোমিটার লাইন নির্মাণে সরকারের ২২ লাখ ৯৩ হাজার ৪শ’ টাকা করে মোট ১৩ কোটি ৭৬ লাখ ৪ হাজার টাকা খরচ হবে। অথচ এই ভৌগোলিক এলাকাটি হচ্ছে পটুয়াখালী পল্লীবিদ্যুত সমিতির আওতাভুক্ত। রয়েছে কলাপাড়ায় পল্লীবিদ্যুত সমিতির দফতরসহ সঞ্চালন লাইন। এই সমিতির আওতায় কলাপাড়া পর্যন্ত ৩৩ কেভি বিদ্যুত লাইন বহু আগেই নির্মিত হয়েছে। কলাপাড়া থেকে ধানখালীর দূরত্ব মাত্র ১০ কিলোমিটার। তাই কলাপাড়া থেকে ওই তাপবিদ্যুত কেন্দ্র পর্যন্ত পল্লীবিদ্যুত সমিতির মাধ্যমে বাইপাস বিদ্যুত লাইন নির্মাণ করা হলে সরকারের খরচ হবে মাত্র দুই কোটি ২৯ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। আর সাশ্রয় হবে ১১ কোটি ৪৬ লাখ ৭০ হাজার টাকা। এ ব্যাপারে পটুয়াখালী পল্লী বিদ্যুত সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (কারিগরি) প্রকৌশলী মোঃ শাহআলম জানান, এ বিয়য়টি জানিয়ে বাংলাদেশ পল্লীবিদ্যুত বোর্ডের (বাপবিবো) প্রধান প্রকৌশলীকে ৩০ জুলাই চিঠি পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও ওজোপাডিকো লিমিটেডকে চিঠি দেয়া হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি।