১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিয়াল মাদ্রিদের শিরোপা

  • তুর্কি ক্লাব গালাতাসারেকে ২-১ গোলে হারিয়েছে স্প্যানিশ পরাশক্তি, লা লীগার শিরোপা ধরে রাখার প্রত্যয় এনরিকের, তবু রেকর্ড মেসির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নতুন মৌসুম শুরুর আগে আরও একটি শিরোপা শোকেসে ভরেছে রিয়াল মাদ্রিদ। মঙ্গলবার রাতে প্রস্তুতি টুর্নামেন্ট সান্টিয়াগো বার্নাব্যু ট্রফি জিতে নিয়েছে গ্যালাক্টিকোরা। নিজেদের মাঠে শিরোপানির্ধারণী ম্যাচে রিয়াল ২-১ গোলে পরাজিত করে তুরস্কের ক্লাব গালাতাসারেকে। চ্যাম্পিয়নদের হয়ে গোল করেন নাচো ফার্নান্ডেজ ও মার্সেলো। অতিথিদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ডাচ্ তারকা ওয়েসলি স্নেইডার।

রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক প্রেসিডেন্ট সান্টিয়াগো বার্নাব্যুর স্মরণে প্রতিবছর মৌসুম শুরুর আগে এ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। তবে গতবছর এ টুর্নামেন্টটি হয়নি। এবার রিয়াল আমন্ত্রণ জানায় গালাতাসারেকে। তাদের হারিয়ে আসরে রেকর্ড সর্বোচ্চ ২৫ বার শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছে রাফায়েল বেনিতেজের দল। মজার ব্যাপার হচ্ছেÑ ১৯৭৯ সাল থেকে শুরু হওয়া এ আসরে প্রথম দুইবার চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি রিয়াল। ওই দুইবার শিরোপা জয় করে জার্মান পরাশক্তি বেয়ার্ন মিউনিখ।

নিজেদের মাঠ সান্টিয়াগো বার্নাব্যু স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরু থেকেই গালাতাসারের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে স্বাগতিক রিয়াল। ১৭ মিনিটে নাচোর গোলে এগিয়ে যায় তারা। ক্রোয়েশিয়ার তারকা মিডফিল্ডার লুকা মডরিচের উঁচু করে বাড়ানো বলে অনেকটা লাফিয়ে উঠে হেড করে লক্ষ্যভেদ করেন স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় রিয়াল। বিরতির পর ম্যাচে ফিরতে প্রচেষ্টা চালাতে থাকে অতিথিরা। ৫২ মিনিটে সমতায় ফেরে তারা। এবারের মৌসুমেই আর্সেনাল থেকে দলে যোগ দেয়া লুকাস পোডোলস্কির বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে গালতাসারের হয়ে গোলটি করেন ডাচ্ মিডফিল্ডার স্নেইডার। এরপর দুই দলই বেশকিছু গোছানো আক্রমণ করে। কয়েকটা ভাল সুযোগও পেয়েছিল দু’দল। কিন্তু গোল পাচ্ছিল না কেউই। অবশেষে ৮১ মিনিটে মার্সেলোর অসাধারণ গোলে জয় নিশ্চিত হয় রিয়ালের। একক প্রচেষ্টায় দৃষ্টিনন্দন গোল করেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার। অনেকটা দৌড়ে তিনজনকে পেছনে ফেলে গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে মূল্যবান গোলটি করেন এই তারকা লেফট-ব্যাক।

মৌসুম শুরুর আগে আগে অস্ট্রেলিয়া ও চীনে প্রস্তুতিমূলক প্রীতি টুর্নামেন্ট ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স কাপেরও শিরোপা জিতেছিল রিয়াল। এই জয়ে নতুন মৌসুমে দল উজ্জীবিত হয়ে খেলতে পারবে বলে বিশ্বাস রিয়াল কোচ রাফায়েল বেনিতেজের। এদিকে স্প্যানিশ সুপার কাপের শিরোপা জিততে না পারলেও আরও একটি ব্যক্তিগত রেকর্ড গড়েছেন লিওনেল মেসি। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সুপার কাপের পাঁচটি আসরে গোল করার কীর্তি গড়েছেন বার্সিলোনা মহাতারকা। ন্যূ-ক্যাম্পে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটি বিলবাওয়ের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে বার্সা। ক্যাটালানদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন মেসি। গোলটি করেই অনন্য রেকর্ড গড়েন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এর আগে ২০০৯, ২০১০, ২০১১ ও ২০১২ সালের আসরে গোল করেছিলেন তিনি। স্প্যানিশ সুপার কাপের সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটা আগে থেকেই মেসির দখলে। সর্বোচ্চ ১১ গোল করেছেন তিনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭ গোল করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক স্ট্রাইকার ও অধিনায়ক রাউল গঞ্জালেস।

আর সুপার কাপে হারলেও এটিকে মন্দ হিসেবে দেখছেন না বার্সিলোনা কোচ লুইস এনরিকে। স্প্যানিশ এই কোচ পরাজয়কে সব সময় খারাপ হিসেবে দেখতে রাজি নন। সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, বিলবাওকে অভিনন্দন। প্রথম লেগ শেষে তারাই শিরোপার দাবিদার ছিল। তবে মাঝে মধ্যে হারটাও ইতিবাচক দিক বয়ে আনে। এতে শিরোপা জেতা যে এত সহজ না, সেটি বোঝা যায়। দল হিসেবে প্রত্যেককেই কিভাবে জিততে হবে, আর কি করলে হারতে হয়, তা জানা থাকা দরকার। এনরিকে আরও বলেন, দ্রুতই লা লীগার নতুন মৌসুম শুরু হবে। লীগ শিরোপা জেতাটা খুবই কঠিন। তবে শিরোপা ধরে রাখার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। চ্যাম্পিয়ন হিসেবে চ্যালেঞ্জ নিতে সবাই প্রস্তুত।