২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রূপকথা নয়, বাস্তবেই আমরা জিততে পারি ॥ ক্লার্ক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মর্যাদার এ্যাশেজ শেষ হয়ে যাবে আর চারদিন পরেই। কারণ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্ট শুরু হয়েছে। আর যে কয়েকদিন খেলা হবে সে কয়েকটা দিনই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে টিকে থাকবেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক। কারণ ইতোমধ্যেই অবসরের ঘোষণা দিয়ে ফেলেছেন তিনি। শেষ ম্যাচটা জয় নিয়েই ক্যারিয়ারে ইতি টানতে চান ৩৪ বছর বয়সী ক্লার্ক। এবার এ্যাশেজে অসিরা যেভাবে পরাজিত হয়েছে এতে অনেকেই ভাবছেন অস্ট্রেলিয়ার জয় পাওয়াটা এখন রূপকথার নামান্তর। কিন্তু এ ধরনের সমালোচনাকে উড়িয়ে দিলেন অসি অধিনায়ক। তিনি মনে করেন এখন পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া দল যেমন খেলেছে তারচেয়ে অনেক ভাল খেলতে সক্ষম তারা। বাস্তবিকপক্ষে নিজেদের সামর্থ্য অনুসারে খেলতে পারলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়বে অস্ট্রেলিয়া এমনটাই দাবি অধিনায়ক ক্লার্কের। দারুণ এক দুঃসময় আর অনেক বড় একটি লজ্জার সামনে দাঁড়িয়ে আছেন ক্লার্ক। দলের নির্ভরতার প্রতীক হয়েও ব্যাট হাতে চরম ব্যর্থতার সঙ্গে তাঁর দায় নিতে হচ্ছে দলের পরাজয়ের। ওভালে শুরু হওয়া পঞ্চম এ্যাশেজ টেস্ট ক্লার্কের ক্যারিয়ারে ১১৫তম। প্রায় এক শ’ বছরেরও বেশি সময় পর প্রথম অসি অধিনায়ক হিসেবে ইংল্যান্ডের মাটিতে টানা চারটি এ্যাশেজ সিরিজ হারের লজ্জা বরণ করেছেন। এবার শেষ টেস্ট ইংলিশরা জিতলে এই প্রথম ঘরের মাটিতে তারা কোন এক সিরিজে চারটি টেস্ট জয়ের নতুন রেকর্ডও গড়বে। কিন্তু ক্লার্ক আশা করেন অস্ট্রেলিয়া শেষ টেস্টে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারবে। তিনি বলেন, ‘এখানে কোন রূপকথার বিষয় আছে কি? আমরা অনেক কারণ সামনে নিয়ে এখানে খেলতে এসেছি এবং চেষ্টা করছি আমাদের সেরা ক্রিকেট খেলার। আমি খুব বেশি ইতিবাচক কিছু কিংবা সমালোচনার কিছু পড়ি না। কিন্তু আমি নিশ্চিত অস্ট্রেলিয়ার ভক্তরা প্রত্যাশা করে যে এ সিরিজে তারা যেমন খেলছে তারচেয়েও ভাল খেলতে সক্ষম।’ ইংল্যান্ডের মাটিতে ১৯ এ্যাশেজ টেস্ট খেলেছেন ক্লার্ক। এর মধ্যে মাত্র তিনটি জয় দেখেছেন অথচ এর মধ্যে ক্যারিয়ারে দুইবার ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরের মাটিতে অস্ট্রেলিয়া ৫-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশের মধুর স্মৃতি পেয়েছে। দুইবারই অসি দলের গর্বিত ক্রিকেটার ছিলেন ক্লার্ক। কিন্তু অধিনায়ক হিসেবে এবার দলকে কোনভাবেই ভাল কিছু এনে দিতে পারছেন না তিনি। এ বিষয়ে ক্লার্ক বলেন, ‘অসি ভক্তরা সবসময়ই প্রত্যাশা করে দলনেতা সামনে থেকে নেতৃত্ব দেবে এবং রুখে দাঁড়াবে। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমার পারফর্মেন্স যেরকমটা আমি চাই তেমন হয়নি পুরো সিরিজে। কিন্তু আমি মাথা উঁচু করে এ সিরিজ শেষ করতে চাই। এটা অবশ্যই অনেক বড় কিছু হবে। কিন্তু আমার জন্য এবং দলের জন্য এটাই উপযুক্ত সময় খেলা থেকে আমার দূরে সরে যাওয়া।’