১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মহাকাশ স্টেশনে রসদ পাঠাল জাপান

জরুরী রসদ সরবরাহ করতে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটি রকেট পাঠিয়েছে জাপান।

কাগুসিম প্রদেশের তানেগাশিমা মহাকাশ কেন্দ্র থেকে জাপানের স্থানীয় সময় বুধবার রাত ৮টা ৫০ মিনিটে একটি এইচ-টুবি রকেট উৎক্ষেপণ করা হয়। এর সঙ্গে সংযুক্ত আছে সাড়ে পাঁচ টন ওজনের ‘কনুতরী’ নামক একটি রসদবাহী কার্গো জাহাজ। জাপানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা একথা জানিয়েছে। খবর এএফপির

জাপান গত ছয় বছরে পঞ্চমবারের মতো সফলভাবে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ‘কনুতরী’ পাঠাল। জাপানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন এনএইচকে বলেছে, পৃথিবী থেকে প্রায় চারশ’ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত আন্তর্জাতিক মহাকাশ কেন্দ্রে খাবার, বিশুদ্ধ পানি ও যন্ত্রাংশ পৌঁছে দেবে কনুতরী। এ কার্গো জাহাজটি পৌঁছতে সময় লাগবে পাঁচদিন। গত বছর অক্টোবরে মহাকাশ কেন্দ্রে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া বিশুদ্ধ খাবার ও পানি ফুরিয়ে গেছে। গত জুলাইয়ের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (নাসা) জাপানের ‘এয়ারোস্পেস এক্সপ্লোরেশন এজেন্সি’কে (জাক্সা) আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে রসদ পাঠানোর অনুরোধ জানায়। জাক্সার মুখপাত্র ইয়ূসুকি সুজকি বলেন, যুক্তারাষ্ট্রের পাঠানো অনুরোধে আমরা মাত্র এক মাসের কম সময়ে এই রসদবাহী কার্গো রকেটটিকে প্রস্তুত করি। যদিও কাজটি অনেক কঠিন ছিল, তারপরও আমরা পিছপা হইনি। জাপান স্পেশ স্টেশনের কিমিয়া ইয়ূ বলেন, আমরা এমন একটি কাজ করেছি যা জাপানীদের জন্য গর্বের বিষয়। আমাদের এ রকেট উৎক্ষেপণের মধ্য দিয়ে বিশ্ববাসী আমাদের ক্ষমতা দেখল। ‘কনুতরী’ একটি জাপানী পাখির নাম। যার অর্থ উড়ন্ত শুভ্র।

পোল্যান্ডের দীর্ঘতম নদীর পানি রেকর্ড পরিমাণ হ্রাস

পোল্যান্ডের দীর্ঘতম নদী ভিসতুলার পানি মঙ্গলবার ২শ’ বছরের মধ্যে সবচেয়ে রেকর্ড পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে। দেশটিতে চলমান ভয়াবহ খরার কারণেই নদীর পানি হ্রাস পেয়েছে। এক আবহাওয়া কর্মকর্তা এ কথা জানান।

পোল্যান্ডের আইএমজিডব্লিউ আবহাওয়া ইনস্টিটিউটের জলবিজ্ঞানী গ্রেজজোর্জ ওয়ালিয়েউইস্কি জানান, ১৭৮৯ সালের পর থেকে এটাই পানির স্তর সবেচেয়ে বেশি নেমে যাওয়ার ঘটনা। দেশটির রাজধানী ওয়ার্শয়ে নদীটির পানির স্তর ৫০ সেন্টিমিটারে (২০ ইঞ্চি) নেমে গেছে। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

তিনি আরও জানান, রাজধানীতে সাধারণত গড়ে নদীটির পানি ২৩৭ সেন্টিমিটার থাকে। কিন্তু ১৯৬০ সালে এর পানির স্তর বেড়ে ৭৮৭ সেন্টিমিটার পর্যন্ত পৌঁছেছিল। কিন্তু এরপর থেকে নদীর পানি হ্রাস পেতে থাকে। আগামী দিনগুলোতেও নদীর পানির স্তর হ্রাস পেতে থাকবে।