২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালের বিনামুল্যে ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

মির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালের বিনামুল্যে ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

নিজস্ব সংবাদদাতা, মির্জাপুর॥ মির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালে শুক্রবার থেকে বিনামুল্যে নারীদের ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা শুরু হয়েছে। কুমুদিনী হাসপাতাল ও ইউনাইটেড স্টেটস্্ এজেন্সি ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট (ইউএসএইড) এর যৌথ সহায়তায় শুরু হওয়া এ চিকিৎসা আগামী ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। যার কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে এনজেন্ডার হেলথ নামে আমেরিকার একটি বেসরকারি সংস্থার বাংলাদেশ কান্ট্রি কার্যালয় (বিসিও)।

হাসপাতাল সূত্র মতে, সমাজের অবহেলিত নারী যাদের ফিমেল জেনিটাল ফিস্টুলা, ভেসিকো ভ্যাজাইনাল ফিস্টুলা, রেক্টোভ্যাজাইনাল ফিস্টুলা, অবসট্রেটিক্যাল বা আইট্রেজনিক ফিস্টুলা রয়েছে তাদেরকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে বিনামুল্যে এ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ওগান্ডা থেকে আসা চিকিৎসক ফ্রেডক্রিয়া রোগীদের অস্ত্রোপাচার করছেন।

সূত্রটি জানান, ইতিমধ্যে ফরিদপুর, মাগুরা, মাদারিপুর, নেত্রকোনা, জামালপুরের সরিষাবাড়ি উপজেলা, শেরপুর, ময়মনসিংহ ও টাঙ্গাইলের বিভিন্ন স্থান থেকে চিকিৎসা করানোর জন্য ৩৬জন রোগী কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যাদের সবাইকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে খোঁজ করে আনা হয়েছে।

শুক্রবার প্রথম দিনে ৫জনের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে উল্লেখ করে কুমুদিনী হাসপাতালের পরিচালক ডা. দুলাল চন্দ্র পোদ্দার জানান, সারাদেশ থেকে খুঁজ করে রোগী আনা হচ্ছে। একজন ফিস্টুলা রোগীর অস্ত্রোপচারসহ সুস্থ হতে প্রায় তিন সপ্তাহ সময় লাগে। এ রোগের চিকিৎসা দিতে প্রত্যেকের পেছনে প্রায় ৫০ হাজার টাকা ব্যয় হবে। যা রোগীরা সম্পূর্ণ বিনামুল্যে পাবেন। এছাড়া দুর থেকে আসা রোগীর সঙ্গে একজনে থাকা খাওয়া ও যাতায়াতের ব্যবস্থাও করবে কুমুদিনী কর্তৃপক্ষ।