২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টেকনাফে শিক্ষকের অভাবে স্কুলে ক্লাস নিচ্ছে শিক্ষার্থীরা

টেকনাফে শিক্ষকের অভাবে স্কুলে ক্লাস নিচ্ছে শিক্ষার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ টেকনাফে সাবরাং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সঙ্কটের কারণে শিক্ষার্থী নিজেরাই ‘শিক্ষকতা’ করছে। ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী দিয়ে ৪র্থ ও ৩য় শ্রেণির ক্লাস নেয়া হচ্ছে নিয়মিত। ১৮৯৬ সালে চারটি শ্রেণী কক্ষ নিয়ে টিন ও বেড়ার তৈরি বিদ্যালয়টি প্রতিষ্টিত হলেও বর্তমানে বিদ্যালয়ে ৮৯০ জন শিক্ষার্থীর বিপরীতে রয়েছেন প্রধান শিক্ষকসহ তিনজন শিক্ষক। এরমধ্যে শিশু শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত ১২টি শাখা রয়েছে। এতে পাঠদানসহ সার্বিক কর্মকান্ড বিঘিœত হচ্ছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিদ্যালয়ে সরকারিভাবে ১২জন শিক্ষক থাকার কথা থাকলেও সে অনুপাতে নেই। প্রধান শিক্ষক আনিস উল্লাহ, সহকারী শিক্ষক মো: শাকের ও সাজেদা বেগম বিদ্যালয়ে পাঠদান চালিয়ে যাচ্ছেন।

শিক্ষকের ভূমিকায় থাকা দিল নেওয়াজ ও দ্বিপ শিখা জানান, প্রায় ৮ মাস ধরে প্রতিনিয়ত ছোট ভাই-বোনদের পাঠদানের সহযোগিতা করে আসছি। প্রধান শিক্ষক বলেন, শিক্ষক সঙ্কটের কারণে ঐতিহ্যবাহী স্কুলটির সুনাম অর্জন ভেস্তে যাচ্ছে। ২০১৪ সালে সমাপনী পরীক্ষায় ৯০ জন শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করে শতভাগ পাস করেছে। এরমধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন ৪ জন, ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়েছেন ২ জন, উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ট প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ২০১৫ সালে উপজেলার শ্রেষ্ট প্রধান শিক্ষক হিসেবে আমাকে নির্বাচিত করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল হক বলেন, আমি কয়েক মাস ধরে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার জন্য বলছি। কিন্তু কোনো কাজ হচ্ছে না। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সুব্রত কুমার ধর জানান, নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ করা না হলে এ সমস্যা-সমাধান সম্ভব নয়।