২২ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিলুপ্তির পথে গাইবান্ধার কাউনের মোয়া

আবু জাফর সাবু, গাইবান্ধা ॥ গাইবান্ধার পল্লী অঞ্চল থেকে শুরু হয়ে শহর-বন্দরে সকাল-বিকেলের নাস্তা হিসেবে জনপ্রিয় আদি মিষ্টান্ন কাউনের মোয়া এখন বিলুপ্তপ্রায়। এতে এ কাউনের মোয়া নির্ভরশীল পরিবারগুলো এখন চরম বিপাকে। গাইবান্ধা জেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নের মান্দুয়ারপাড়া গ্রামের ২০টি পরিবার কাউনের মোয়া তৈরি করে তাদের জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। কাউন হচ্ছে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র হলুদ দানাদার ফসল, যা রোদে শুকিয়ে লোহার কড়াইয়ে আগুনে ভেজে তার সঙ্গে গুড় মিশিয়ে তৈরি করা হয় মোয়া। এছাড়া কাউন সেদ্ধ করে খিচুড়ি রান্না করেও খায় গ্রামের লোকজন। গ্রামগঞ্জে এখনও কাউনের মোয়ার যথেষ্ট চাহিদা রয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও সারাবছর কাউনের সরবরাহ না থাকায় মোয়ার উৎপাদন ব্যাহত হচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে, কৃষি সেক্টরে কৃষকরা ধান উৎপাদনের দিকে বেশি মাত্রায় ঝুঁকে পড়ায় কাউনের উৎপাদন হ্রাস পেয়েছে। এদিকে চাহিদা থাকা সত্ত্বেও সারাবছর কাউনের মোয়া তৈরির সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে না পেরে পেশাজীবী কারিগররা চরম বিপাকে পড়েছে। মৌসুম সময়ে যে পরিমাণ কাউন সংগৃহীত হয় তাতে ৬ মাসের বেশি এ মোয়া তৈরির কাজ চালু রাখা যায় না। ফলে বাকি ৬ মাস কারিগরদের দিনমজুরি থেকে শুরু করে অন্য পেশায় জড়িয়ে জীবিকা নির্বাহ করতে হয়।