২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বোল্ট-গ্যাটলিন লড়াইয়ের অপেক্ষা

  • প্রস্তুত বেজিং, আজ থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্ব এ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সাত বছরে অনেক পরিবর্তন এসেছে। বদলেছে বার্ডস নেস্টের চেহারা, বদলে গেছে অনেক প্রতিযোগী। এমনকি ২০০৮ বেজিং অলিম্পিকে এ স্টেডিয়ামের ট্র্যাকে ঝড় তোলা জ্যামাইকান স্প্রিন্টার উসাইন বোল্টও বদলে গেছেন। ২০১৫ সালের র‌্যাঙ্কিংয়ে সর্বকালের সবচেয়ে গতিধর এ স্প্রিন্টারের অবস্থান ৬ নম্বরে। সেদিক থেকে বছরের সেরা টাইমিং গড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাস্টিন গ্যাটলিন আছেন শীর্ষে। এবার মূলত সবচেয়ে আকর্ষণীয় ইভেন্ট ১০০ মিটার স্প্রিন্টে লড়াই হবে এ দু’জনের। সেটা দেখার জন্য পুরো বিশ্বই উন্মুখ হয়ে আছে। অপেক্ষার প্রহর শেষ। আজ থেকে বেজিংয়ে শুরু হচ্ছে বিশ্ব এ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপস। ৭ বছর আগে বার্ডস নেস্টে বেজিং অলিম্পিকে স্বর্ণ জিতে ট্র্যাক এ্যান্ড ফিল্ডের সম্রাট হিসেবেই যাত্রা শুরু হয়েছিল তাঁর। তারপর এই প্রথম আবার কোন বড় আসর হবে এই স্টেডিয়ামে। চলবে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত।

সাত বছর আগে বেজিং অলিম্পিক দেখেছিল নতুন দ্রুততম মানবকে। বোল্ট ৯.৬৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে শেষ করেছিলেন ১০০ মিটার। বার্ডস নেস্ট স্টেডিয়াম থেকে শুরু হয়েছিল বোল্টের সাফল্য গাথা। পরবর্তীতে তিনি আরও তিনটি অলিম্পিক স্বর্ণপদক জিতেছেন। এমনকি পরের বছর (২০০৯) বার্লিনে ৯.৫৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে শেষ করে সবার চোখ কপালে তুলে দিয়েছিলেন। সেই বোল্ট কি আগের মতোই আছেন? কঠিন প্রতিপক্ষরা নিয়মিত বিভিন্ন মিটে অংশ নিয়েছেন। কিন্তু পায়ের ইনজুরির কারণে এখনও নিজেকে ফিরে পাওয়ার লড়াইয়েই আছেন বোল্ট। এছাড়া কয়েকটা গাড়ি দুর্ঘটনার সম্মুখীনও হয়েছেন। সব মিলিয়ে গত একটা বছর সেভাবে দৌড়াতেও পারেননি তিনি। অধিকাংশ সময় থেকেছেন বিশ্রামে। এমনকি জাপানে হওয়া জ্যামাইকার কন্ডিশনিং ক্যাম্পেও ছিলেন না। কি অপেক্ষা করছে তাঁর জন্য এবার বার্ডস নেস্টে? আজ থেকে শুরু হবে এখানে এ্যাথলেটিক্স বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপস। গত মাসের ২৪ তারিখ লন্ডন মিটে নিজের মৌসুম সেরা টাইমিং করেছেন ৯.৮৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে। তাঁর প্রতিপক্ষরা এর চেয়ে অনেক এগিয়ে আছেন। সে কারণে বার্ডস নেস্ট আবারও বোল্টকে সাত বছর আগের অবস্থানে দেখবে কিনা তা নিয়ে আছে সংশয়। তাঁর অবস্থান টাইমিং অনুসারে ৬ নম্বরে। অপরদিকে, চরম প্রতিপক্ষ গ্যাটলিন শীর্ষে মৌসুম সেরা ৯.৭৪ সেকেন্ড টাইমিং গড়ে। মে মাসে দোহায় এ টাইমিং গড়া গ্যাটলিনের আরও দুটি সেরা টাইমিং আছে ৯.৭৫ সেকেন্ডের এবং আরেকটি ৯.৭৮ সেকেন্ড। তাই বার্ডস নেস্টেই বোল্টের পতন দেখতে পাচ্ছেন অনেকে।

গ্যাটলিন ২০০৬ থেকে ২০১০-এর মধ্যে দু’বার ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার কারণে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়েছেন। ২০০৪ সালে অলিম্পিক স্বর্ণ এবং ২০০৫ সালে হেলসিংকিতে ডাবল স্বর্ণ জয়ের পর এ নিষেধাজ্ঞার খাঁড়া নেমে এসেছিল তাঁর ওপর। ফেরার পর ২০১২ বিশ্ব ইনডোরের ৬০ মিটারে স্বর্ণ এবং ২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ, মস্কোয় বিশ্ব আসরে রৌপ্য জিতেছেন। ৩৩ বছর বয়সেও তিনি দারুণ গতি রেখে দৌড়ে ২০১৩ থেকে এখন পর্যন্ত মোট ২৭টি রেসে অংশ নিয়ে অপরাজেয় আছেন। অবশ্য বোল্ট-গ্যাটলিন দ্বৈরথে বোল্ট ৬-১ ব্যবধানে এগিয়ে। কিন্তু সাম্প্রতিক বিবেচনায় গ্যাটলিনকেই এগিয়ে রাখছেন সবাই। এ বিষয়ে গ্যাটলিন নিজেই বলছেন, ‘প্রতিযোগিতা হচ্ছে প্রতিদ্বন্দ্বিতা। এটা সবসময় নির্ভর করে কে ভাল ফর্মে আছে এবং তার প্রয়োগ ঘটাতে পারছে সেটার ওপর।’ কম প্রতিযোগিতায় অংশ নিলেও বোল্ট অবশ্য নিজেকে নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী। তিনি বলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক কোন রেসকে আমি অবশ্যই পছন্দ করি। কিন্তু আমার মনে হয় এর চেয়ে ভাল অনুশীলন করা। সেটা আমি ভালভাবেই করেছি।’ এছাড়াও এ ইভেন্টে আছেন আরেক মার্কিন স্প্রিন্টার টাইসন গে। তিনিও ১ বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়েছেন। আছেন বোল্টের স্বদেশী আসাফা পাওয়েল এবং তরুণ কানাডিয়ান আন্দ্রে ডি গ্রেসি। বাস্কেটবল থেকে স্প্রিন্টে আসা গ্রেসি সেরা টাইমিং করেছেন ৯.৭৫। তাই তিনিও আছেন সবার নজরে। মেয়েদের স্প্রিন্টে লড়াই হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ও অলিম্পিক ডাবল জয়ী জ্যামাইকার শেলী এ্যান ফ্রেজার-প্রাইস। তবে তাঁকে চ্যালেঞ্জ ছুড়তে প্রস্তুত ২৯ বছর বয়সী মার্কিন তারকা এ্যালিসন ফেলিক্স।