২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ ভুটানকে হারালেই শেষ চারে বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অল নেপাল ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে ২০-২৯ আগস্ট পর্যন্ত নেপালেরর কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিত হবে ‘সাফ অনুর্ধ-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপ’ ফুটবলের আসর। এতে অংশ নেবে সাফ অঞ্চলের ছয় দেশ। খেলা হবে দুটি গ্রুপে। ‘এ’ গ্রুপে আছে স্বাগতিক নেপাল, বাংলাদেশ এবং ভুটান। আর ‘বি’ গ্রুপে আছে মালদ্বীপ, ভারত ও আফগানিস্তান। অংশ নিচ্ছে না পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। যুবাদের সাফে বাংলাদেশ আজ প্রথম মাঠে নামছে। প্রতিপক্ষ ভুটান।

সিলেটে সৈয়দ গোলাম জিলানীর শিষ্যরা চ্যাম্পিয়ন হয়ে উজ্জীবিত করেছে যুবাদের। এবার পালা সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যদের। তারা কি পারবে কাঠমান্ডু জয় করে ঢাকা ফিরতে? ‘এ’ গ্রুপে আছে স্বাগতিক নেপাল, বাংলাদেশ এবং ভুটান। ‘বি’ গ্রুপে মালদ্বীপ, ভারত ও আফগানিস্তান। বৃহস্পতিবার উদ্বোধনী ম্যাচে নেপাল ৩-১ গোলে হারিয়েছে ভুটানকে। প্রথম ম্যাচের এ ফল বাংলাদেশের সেমিতে ওঠার কাজটা সহজ করে দিল। শনিবার ভুটানকে হারালেই পৌঁছে যাবে শেষ চারে। ড্র করলেও সুযোগ থাকবে। তখন শেষ ম্যাচে নেপালের বিপক্ষেও কমপক্ষে ড্র করতে হবে।

অনুর্ধ-১৯ দলে প্রিমিয়ার লীগে খেলা ফুটবলার আছে ৯ জন। যাদের বেশিরভাগই সুযোগ পাবে প্রথম একাদশে। নেপাল যাওয়ার আগে অনুর্ধ-১৯ দল দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে। প্রথম ম্যাচে ১-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে। দ্বিতীয় ম্যাচে ১-১ গোলে ড্র করেছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেডের রিজার্ভ বেঞ্চের সঙ্গে। বৃহস্পতিবার কাঠমান্ডুতে অনুশীলনের পর স্থানীয় মিডিয়াকে বাংলাদেশ কোচ সাইফুল বারী টিটু বলেন, ‘আমরা অনুর্ধ-১৬ সাফে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি। ছোটদের এ ফল যুবাদের টুর্নামেন্টে আমাদের ভাল খেলতে সাহায্য করবে। সেমিফাইনালে পৌঁছাতে এ ম্যাচটাতে জয় চাই আমরা। ভুটানের ম্যাচ ভিডিও দেখেছি। তারা আগের চেয়ে অনেক উন্নতি করেছে। বর্তমানে তারা প্রেসিং ফুটবল খেলে। তবে তাদের কিভাবে মোকাবেলা করতে হবে তা আমরা জানি। এই টুর্নামেন্টে আমাদের প্রথম লক্ষ্য সেমিফাইনালে খেলা।’ বাংলাদেশের অধিনায়ক মাসুক মিয়া জনি বলেন, ‘দলের সবাই মানসিক এবং শারীরিকভাবে ভাল আছে। আমরা নিজেদের সেরাটা উপহার দিতে মুখিয়ে আছি। ভুটানকে হারিয়ে সেমিফাইনালের টিকেটটা নিশ্চিত করতে চাই।’ প্রতি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল খেলবে সেমিফাইনালে। প্রথম সেমিফাইনাল হবে ২৭ আগস্ট বেলা সোয়া ১২টায়। একই দিন বিকেল পৌনে ৪টায় হবে দ্বিতীয় সেমিফাইনাল ম্যাচ। এক দিন বিরতি দিয়ে ২৯ আগস্ট দুপুর সাড়ে ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে ফাইনাল খেলা। বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ জাতীয় দল ॥ গোলরক্ষক : আনিসুর রহমান, সাইফুল ইসলাম খান, মাহফুজ হাসান প্রীতম; রক্ষণভাগ : মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, সাব্বির হোসেন সুমন, মোহাম্মদ ইমন, টুটুল হোসেন বাদশা, বিশ্বনাথ ঘোষ, এমএম ইস্তেখারুল আলম শাকিল, মোহাম্মদ রকি, রহমত মিয়া; মধ্যমাঠ : অনীক হোসেন, মাসুদউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী, মোহাম্মদ ইব্রাহীম, রকিব সরকার, মোহাম্মদ মিঠু, শাহরিয়ার বাপ্পী, ইমরান হোসেন রুবেল, বিপুল আহমেদ, মাসুক মিয়া জনি (অধিনায়ক); আক্রমণভাগ : মান্নাফ রাব্বি, ফয়সাল আহমেদ, রোহিত সরকার।