১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কোয়ার্টার ফাইনালে সেরেনা-ইভানোভিচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছেন সেরেনা উইলিয়ামস, আনা ইভানোভিচ এবং সিমোনা হ্যালেপের মতো তারকারা। বৃহস্পতিবার দারুণ জয়ে সিনসিনাতি মাস্টার্সের কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠেন তাঁরা। তবে দুর্ভাগ্য ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কার। পায়ের ইনজুরির কারণে রিটায়ার্ড করতে বাধ্য হন তিনি। তৃতীয় পর্বের ম্যাচে এদিন রাশিয়ার এ্যানাস্তাসিয়া পাভলিউচেঙ্কোভার মুখোমুখি হয়েছিলেন টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান এ তারকা। প্রতিপক্ষের বিপক্ষে শুরুটাও করেছিলেন দারুণভাবে। প্রথম সেট ৬-১ গেমে জিতে নিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয় সেটে ৩-০ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়েন আজারেঙ্কা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ম্যাচ শেষ না করেই অবসর নিতে হয় তাঁকে। এর ফলে ইউএস ওপেনের আগে বড় একটা ধাক্কার সম্মুখীন হতে হচ্ছে ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কাকে।

গত সপ্তাহে বড় ধাক্কার মুখোমুখি হয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামসও। যে সেরেনা তাঁর ক্যারিয়ারের স্বর্ণালী সময় পার করছেন সেই সেরেনাকেই হারিয়ে চমকে দিয়েছিলেন সুইজারল্যান্ডের বেলিন্ডা বেনচিচ। রজার্স কাপের সেমিফাইনালে সেরেনাকে হারিয়ে টেনিস বিশ্বের পাদপ্রদীপের আলোয় চলে আসেন এই সুইস কন্যা। যে সেরেনা চলতি বছরের প্রথম তিনটি গ্র্যান্ডসøামের সবটিতেই চ্যাম্পিয়ন। গত মৌসুমে উইম্বলডন জিতে পূর্ণ করেছেন ‘সেরেনা সøাম’ জয়ের রেকর্ড। সেই সেরেনাকেই বছরের দ্বিতীয় পরাজয়ের স্বাদ উপহার দেন তিনি। তাই শিরোনামে উঠে আসাটাই তো স্বাভাবিক। তবে পরাজয়ের ব্যর্থতা ভুলে জয়ের ধারায় ফিরতে খুব বেশি সময় নেননি আমেরিকান তারকা। সিনসিনাতি মাস্টার্সেই দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ান তেত্রিশ বছর বয়সী। বৃহস্পতিবার তৃতীয় পর্বের বাধা পেরুতেও খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি তাকে। এদিন তিনি ৬-০ এবং ৬-২ গেমে হারান ইতালির কারিন ন্যাপকে। সহজ জয়ে উচ্ছ্বসিত সেরেনা। ম্যাচের শেষে তিনি বলেন, ‘আসলে প্রত্যেকেই সহজেই ম্যাচ জেতাটা খুব উপভোগ করে।’

প্রতিপক্ষকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়ে তৃতীয় পর্বের বাধা পেরুলেও কোয়ার্টার ফাইনালে সেরেনার প্রতিপক্ষ এখন আনা ইভানোভিচ। সার্বিয়ার এই টেনিস তারকা তৃতীয় পর্বে পরাজিত করেছেন সেøায়ানে স্টিফেন্সকে। সেরেনা উইলিয়ামসেরই স্বদেশী স্টিফেন্স। তারকা ঘাতক হিসেবেই বেশি পরিচিত তিনি। কেননা টেনিস কোর্টে ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকটি টুর্নামেন্টে সেরা সেরা খেলোয়াড়কে হারিয়ে শিরোনাম দখল করে নিয়েছেন তিনি। আর সেই স্টিফেন্সকে বিদায় করেই শেষ আটে ইভানোভিচ। টুর্নামেন্টের ষষ্ঠ বাছাই ইভানোভিচ তৃতীয় পর্বের লড়াইয়ে ২-৬, ৬-৪ এবং ৬-১ গেমে হারান স্টিফেন্সকে। কোয়ার্টার ফাইনালে এখন নিজেকে মেলে ধরতে চান ইভানোভিচ। শেষ আটের লড়াইয়ের আগে ইভানোভিচ সেরেনাকেই এগিয়ে রাখছেন। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এখানে গোপন কোন রহস্য নেই। আসলেই দারুণ টেনিস খেলছে সেরেনা। তার বিপক্ষে খেলতে পারাটা আমার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তার ওপরই বেশি চাপ থাকবে। তাছাড়া চ্যালেঞ্জটা আমারও। জানতে পারব নিজের অবস্থান সম্পর্কে।’ এছাড়া রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপ ৪-৬, ৬-৪ এবং ৬-২ গেমে জার্মানির আন্দ্রেয়া পেটকোভিচকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠেন। সার্বিয়ার জেলেনা জাঙ্কোভিচ হারনা ক্যারোলিনা পিসকোভাকে।