২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টাঙ্গাইলে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সর্বহারা নেতা শেকে নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ২১ আগস্ট ॥ পূর্ববাংলা কমিউনিস্ট পার্টি (এম-এল-লাল পতাকা) সর্বহারা দলের আঞ্চলিক নেতা মজিবুর রহমান শেকে (৪০) বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। শুক্রবার ভোরে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার শ্যামারঘাট এলাকায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সে মারা যায়। শেকের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় হত্যা, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজি, ডাকাতি ও অস্ত্র আইনে মোট ১৮টি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এর মধ্যে তিনটি হত্যাসহ ৯টি মামলা বিচারাধীন। এছাড়া সে পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ছিল। শেকে সদর উপজেলার হুগড়া ইউনিয়নের কাশিনগর গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে।

টাঙ্গাইল র‌্যাবের কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহিউদ্দিন ফারুকী জানান, সদর উপজেলার শ্যামারঘাটে সর্বহারা দুই গ্রুপের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সেখানে যায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সর্বহারা দলের সদস্যরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের গোলাগুলি হলে সর্বহারা দুই গ্রুপ পালিয়ে যায়। এ সময় সর্বহারা দলের আঞ্চলিক নেতা মজিবুর রহমান শেকেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় একটি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি, একটি ম্যাগজিনসহ আটক করে র‌্যাব। সেখান থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টাঙ্গাইল সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুস্তাফিজুর রহমান জানান, লাশ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে নেয়া হয়েছে। টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজের আবাসিক কর্মকর্তা (আরএমও) আশরাফ হোসেন জানান, নিহতের শরীরে একটি গুলির চিহ্ন পাওয়া গেছে। তার পেটের ভেতর দিয়ে গুলি ঢুকে পিঠ দিয়ে বের হয়ে গেছে।