২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাকায় বেড়াতে এসে ফের গণধর্ষণের শিকার এক কিশোরী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ময়মনসিংহ থেকে বন্ধুর সঙ্গে ঢাকায় বেড়াতে এসে আবারও এক কিশোরী গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ তেজগাঁওয়ে রেললাইন বস্তি থেকে ধর্ষিতাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়। ওসিসি’র সম্বন্বয়ক ডাঃ বিলকিস জনকণ্ঠকে জানান, আজ শনিবার সকালে তার শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হবে।

তেজগাঁও থানার ওসি মোঃ মাযহারুল ইসলাম জানান, শুক্রবার সকালে ঢাকার তেজগাঁও রেললাইন এলাকার একটি বস্তি থেকে ১৩ বছর বয়সী মেয়েটিকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষিতা কিশোরীর বরাত দিয়ে ওসি জানান, তার বন্ধু আল আমিনসহ কয়েকজন মিলে তাকে ধর্ষণ করেছে। ওসি মাযহারুল জানান, বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ থেকে সেই ওই বন্ধুর সঙ্গে ঢাকায় আসে। প্রথমে তারা কমলাপুরে যায়। সেখান থেকে কীভাবে তেজগাঁও এলো সেসব বিষয়ে সে ঠিকঠাক কিছু বলতে পারছিল না। ধর্ষণের পর আল আমিন পালিয়ে গেছে বলে ধর্ষিতা কিশোরী পুলিশকে জানিয়েছে। ধর্ষিতা ওই কিশোরীর গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের ত্রিশালে। ওসি জানান, এই ঘটনায় মামলা করা হবে। এজন্য মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। ধর্ষকদের গ্রেফতারের জন্য ইতোমধ্যে একাধিক টিম মাঠে নেমেছে। এদিকে শুক্রবার দুপুরে ওসিসি থেকে ধর্ষিতা কিশোরীকে নিয়ে যায় পুলিশ। ধর্ষকদের গ্রেফতারের জন্য তাকে নিয়ে পুলিশ অভিযানে নামবে বলে ওসিসির সম্বন্বয়ক ডাঃ বিলকিস জানান। তিনি জানান, ধর্ষকদের গ্রেফতারের পর ধর্ষিতাকে পুনরায় ওসিসিতে নিয়ে আসা হবে। এরপরই শনিবার সকালে ধর্ষিতার পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হবে।

উল্লেখ্য, এর আগে রাজধানীর উত্তরায় এক উপজাতীয় গারো তরুণীসহ প্রায় ৫ জন গণধর্ষণের শিকার হয়েছিল। এ নিয়ে আইনশৃঙ্খলাবাহিনী কয়েক ধর্ষককে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠায়।

নির্বাচিত সংবাদ