২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তালতলীতে চরিত্রহীন ইউপি সদস্যের দাপট

তালতলীতে চরিত্রহীন ইউপি সদস্যের দাপট

নিজস্ব সংবাদদাতা, বরগুনা/আমতলী (বরগুনা)॥ বরগুনার তালতলী উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মর্তুজা মোল্লার (৪৭) যৌন লালসার শিকার হয়ে ৮ মাসের সন্তানসম্ভবা গৃহবধু আখি বেগম (২৩) পালিয়ে বেড়াচ্ছে। আখিকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য জীবন নাশের হুমকী দিচ্ছে সেই ইউপি সদস্য।

জানাগেছে, উপজেলার ছোটবগী আশ্রায়ণ প্রকল্পের ঘরে স্বামী পরিত্যাক্তা আখি বেগম দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছে। ইউপি সদস্য মর্তুজা মোল্লা অসহায় গৃহবধুকে বিবাহের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে অবৈধ মেলামেশা শুরু করে। আখি সন্তান সম্ভাব হয়ে পড়লে ইউপি সদস্যকে বিয়ের চাপ দিতে থাকে। লম্পট ইউপি সদস্য তাকে চরিত্রহীন অপবাদ দিয়ে মারধর করে এলাকা থেকে তাড়িয়ে দেয়। আখি বেগম কোন উপায় না পেয়ে গত ২৬ জুলাই বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মর্তুজা মোল্লাসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। আদালতের বিজ্ঞ বিচারক শরিফুল ইসলাম বরগুনা সিভিল সার্জনকে আখি বেগমের ডাক্তারী পরীক্ষার আদেশ দিয়েছেন। এদিকে মর্তুজা মোল্লা ও তার লোকজন মামলা তুলে নেয়ার জন্য আখি বেগমকে জীবন নাশের হুমকী দেয়। সন্ত্রাসীদের ভয়ে সে এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

ইউপি সদস্য মর্তুজা মোল্লা মুঠোফোনে জানান মহিলা একজন চরিত্রহীন। আমাকে জড়িয়ে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। তাকে জীবন নাশের হুমকী দেয়ার প্রশ্নই আসে না।

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক সানজিদা মাহমুদ জানান আখি বেগমের ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে রিপোর্ট আদালতে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।