১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিমান হামলায় আইএস দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা নিহত

ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সেকেন্ড-ইন-কমান্ড ইরাকের উত্তরাঞ্চলে মার্কিন বিমান হামলায় নিহত হয়েছেন বলে হোয়াইট হাউস শুক্রবার জানিয়েছে। খবর এএফপির।

জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিল এ নিহত জঙ্গী নেতার নাম ফাদিল আহমদ আল-হায়ালি বা হাজি মুতাজ বলে জানিয়েছে এবং বলেছে, তিনি আইএস নেতা আবু বকর আল-বাগদাদীর সিনিয়র ডেপুটি ছিলেন। মার্কিন কর্মকর্তারা হায়ালির মৃত্যুর সংবাদ এবারই প্রথম ঘোষণা করছে না। মার্কিন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিসেম্বরে সাংবাদিকদের বলেছেন, জোটের বিমান হামলায় নিহত এ জঙ্গী গ্রুপের কয়েকজন নেতার মধ্যে হায়ালি অন্যতম। তার আরও একটি ছদ্মনাম রয়েছে, তা হচ্ছে আবু মুসলিম আল-তুর্কমানি। কিন্তু মার্কিন সেনাবাহিনী বলেছে, তারা ১৮ আগস্ট মসুল শহরের কাছে একটি যানে বিমান হামলা চালালে হায়ালি নিহত হন এবং তার সঙ্গে নিহত হয়েছেন আইএসের মিডিয়া সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি আবু আবদুল্লাহ। হোয়াইট হাউস হায়ালিকে আইএসের ক্ষমতাসীন পরিষদের সদস্য এবং ইরাক ও সিরিয়ার মধ্যে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র বিস্ফোরক, যান ও মানুষ স্থানান্তরে একজন প্রাথমিক সমন্বয়ক হিসেবে উল্লেখ করেছে। হোয়াইট হাউস বলেছে, দুটি দেশেই আইএসের অভিযানের প্রতি তার সমর্থন ছিল এবং ইরাকে আইএস অভিযান পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন তিনি।

কলম্বিয়া সীমান্তে জরুরী অবস্থা জারি ভেনিজুয়েলার

চোরাচালানিদের সঙ্গে সংঘর্ষে তিন সেনা আহত হওয়ার পর কলম্বিয়া সীমান্তের বেশকিছু অংশজুড়ে জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছেন ভেনিজুয়েলার প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো। ওই এলাকার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য শুক্রবার এ আদেশ জারি করেছেন তিনি। খবর ইয়াহু নিউজের।

আগামী ৬০ দিন ভেনিজুয়েলার তাচিরা রাজ্যের পাঁচটি পৌরসভায় এ আদেশের বলে জরুরী অবস্থা বজায় থাকবে। হ্রাসকৃত মূল্যের খাদ্যসামগ্রী ও গ্যাসোলিনের চোরাচালানিরা এ পৌরসভাগুলোতে ক্রমবর্ধমানভাবে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে। রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক অনুষ্ঠানে দেয়া ভাষণে মাদুরো বলেন, এই ডিক্রির মাধ্যমে বেসামরিক ও সামরিক কর্তৃপক্ষ শান্তি প্রতিষ্ঠায় পর্যাপ্ত ক্ষমতা পাবে। এই ডিক্রির বলে শুধু মৌলিক মানবাধিকার ছাড়া ওই এলাকার নাগরিকদের জন্য প্রতিশ্রুত সব ধরনের সাংবিধানিক অধিকার স্থগিত করা হয়েছে। গোলাগুলিতে তিন সেনা আহত হওয়ার পর বুধবার কলম্বিয়ার সঙ্গে সড়ক যোগাযোগের তিনটি সীমান্ত ক্রসিং বন্ধের নির্দেশ দেন মাদুরো। সীমান্তের ওই এলাকায় মোতায়েন ৫০০ সেনার সঙ্গে যোগ দেয়ার জন্য আরও দেড় হাজার সেনা শুক্রবার সেখানে গিয়েছেন। ভেনিজুয়েলা ও কলম্বিয়ার মধ্যে দুই হাজার ২১৯ কিলোমিটার সীমান্ত আছে। চোরাচালানি ও সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলো প্রায়ই অবৈধভাবে এই সীমান্ত অতিক্রম করে থাকে।