২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শুরুতেই প্রতিশোধের মঞ্চে বার্সিলোনা

  • স্প্যানিশ লা লিগা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে লা লিগার নতুন মৌসুম। তবে আজ থেকেই আসল লড়াইয়ের উত্তাপ। কেননা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সিলোনা ছাড়াও ভিন্ন ম্যাচে আজ মাঠে নামছে তাদেরই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। বার্সিলোনার প্রতিপক্ষ এ্যাথলেটিক বিলবাও। গত সপ্তাহেই স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল এই দুই দল। কিন্তু কাতালানদের হতাশ করে শিরোপা জয়ের উল্লাসে মাতে বিলবাও। পঞ্চম শিরোপা না জিততে পারার ক্ষতটা এখনও তরতাজা। সেই পরাজয়ের প্রতিশোধ নেয়ার লক্ষ্যেই মাঠে নামবে মেসি-সুয়ারেজরা। এটা অবশ্য দারুণ সুযোগ লুইস এনরিকের দলের। শিরোপা হারানোর জ্বালা মেটানোর সুযোগটা যে খুব দ্রুতই পেয়ে গেলেন তারা। তবে পারবে কী বার্সিলোনা? ভক্ত-অনুরাগীদের অপেক্ষা এখন সেটাই দেখার।

স্প্যানিশ সুুপার কাপের প্রথম লেগে এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠ সান মামেসে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল বার্সিলোনা। আর পরাজয়ের সেই ধাক্কা দ্বিতীয় লেগেও সামলিয়ে উঠতে পারেনি লুইস এনরিকের শিষ্যরা। দ্বিতীয় লেগে ১-১ গোলে ড্র হয়। যে কারণে সমষ্টিগতভাবে ৫-১ গোলে জিতে শিরোপা জয়ের উল্লাস করে বিলবাও। আর সেই বিলবাওয়ের মাঠেই নতুন মৌসুম শুরু করবে মেসি-ইনিয়েস্তারা। তবে নতুন মৌসুম শুরুর আগেই বার্সিলোনার চিন্তা রক্ষণভাগ নিয়ে। যে রক্ষণভাগের দুর্বলতার কারণেই সান মামেসে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল বার্সা। এবার লুইস এনরিককে ভাবতে হচ্ছে জেরার্ড পিকের না থাকাটা নিয়েও। বিলবাওয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় লেগে সাইডলাইনের রেফারিকে গালিগালাজ করায় লালকার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছিলেন পিকে। পরে তার শাস্তিস্বরূপ পিকেকে চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশন। শুধু পিকের চিন্তায় নয়। হ্যামস্ট্রিংয়ে ইনজুরির কারণে মাঠে নামতে পারবেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে জর্ডি আলবার। তবে ম্যাচের আগের দিন ঠিকই অনুশীলন করেছেন তিনি। তাই তার মাঠে নামার সম্ভাবনাও বেশ উজ্জ্বল। কিন্তু শনিবার প্রথমবারের মতো অনুশীলনে ফিরলেও বিলবাওয়ের বিপক্ষে খেলতে পারছেন না বার্সিলোনার ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার। দুই সপ্তাহ ধরে মাম্পেসে ভুগেছেন নেইমার। অবশেষে অনুশীলনে ফেরায় দলে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। তবে তার খেলাটা নির্ভর করছে চোট কাটিয়ে পুরোপুরি সুস্থ হওয়ার ওপরই। এ বিষয়ে বার্সিলোনার কোচ এনরিকে বলেন, ‘এটা তার প্রথম দিন। আসলে তার মাঠে ফেরাটা পুরোপুরিভাবেই নির্ভর করছে তার সুস্থ হয়ে উঠার ওপর।’

এদিকে দলবদলের শেষ মুহূর্তে বার্সিলোনা ছেড়ে প্রিমিয়ার লীগে যোগ দিয়েছেন পেড্রো রড্রিগুয়েজ। তবে এ নিয়েও চিন্তিত নন লুইস এনরিক। বরং তার বদলি খেলোয়াড় খুঁজছে বার্সা। পিকে-নেইমার কিংবা পেড্রোর অনুপস্থিতিতেও বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের দলটিতেই রয়েছে মেসি-সুয়ারেজ। তাই এ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে জিততে হলে মেসি-সুয়ারেজকেই সেরাটা দিতে হবে বলে মনে করছেন লুইস এনরিক। তবে মৌসুম শুরুর আগেই নিজেদের ফেবারিট বলে আখ্যা দিয়েছেন কাতালানদের কোচ। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমরাই ফেবারিট দল। কারণ আমরাই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন।’ তবে এবার শিরোপা জিততে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো তিন থেকে চারটি দলই বেশ শক্তিশালী বলে মন্তব্য করেছেন বার্সিলোনার কোচ।

এদিকে দিনের অন্য ম্যাচে বার্সিলোনার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল খেলবে স্পোটিং লিসবনের বিপক্ষে। ক্লাবের দায়িত্ব নেয়ার পর এটাই কোন প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ কোচ রাফায়েল বেনিতেজের। ম্যাচটি হবে স্পোর্টিং লিসবনের মাঠে। গত মৌসুমে কোন শিরোপা জিততে না পারার কারণেই কার্লো আনচেলত্তিকে বরখাস্ত করে কোচ হিসেবে নিয়োগে দেয়া হয় বেনিতেজকে। আর সেই ব্যর্থতা ঘুচানোর লক্ষ্য নিয়েই অভিযান শুরু করবে রিয়াল মাদ্রিদ। এবারের দলবদলের বাজারে নিজেদের ঘর গোছানোর জন্য লা লিগার ক্লাব হিসেবে সবচেয়ে ব্যস্ত ছিল রিয়াল মাদ্রিদেরই নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। কিন্তু ক্লাবটির কোচ দিয়েগো সিমিওনে বলেছেন এখনও তারা একজন মিডফিল্ডারের খোঁজে আছে। চ্যাম্পিয়ন বার্সিলোনা ও রানার্সআপ রিয়াল মাদ্রিদের পরে তৃতীয় স্থানে থেকে গত মৌসুম শেষ করেছিল এ্যাথলেটিকো। এর ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগেও খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ক্লাবটি।