২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলম্বো টেস্টের নিয়ন্ত্রণে ভারত

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তিন দিনে কলম্বো টেস্টের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে ভারত। তৃতীয় দিন শেষে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে বিরাট কোহলিদের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৭০ রান। সব মিলিয়ে ১৫৭ রানের লিড সফরকারীদের। মুরলি বিজয় ৩৯ ও অজিঙ্কা রাহানে ২৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। ভারতের ৩৯৩ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে ৩০৬ রানে অলআউট হয় শ্রীলঙ্কা। গলের প্রথম টেস্ট জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০তে এগিয়ে স্বাগতিকরা। বিদায়ী টেস্টে কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারাকে জয় উপহার দেয়ার পাশাপাশি এক ম্যাচ হাতে রেখে সিরিজ পকেটে পুরতে চাইছেন অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। কাজটা কেবল কঠিনই নয়, উল্টো চাপের মুখে লঙ্কানরা।

৩ উইকেটে ১৪০ রান নিয়ে শনিবার তৃতীয় দিনে নিজেদের প্রথম ইনিংসের খেলা শুরু করে শ্রীলঙ্কা। ৫৫ ওভারে বাকি ৭ উইকেট হারিয়ে আর ১৪৬ রান যোগ করতে পারে স্বাগতিকরা। দলের সংগ্রহ তিন শ’র কোটা পেরোতে ম্যাথুসের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। ১৯ রান নিয়ে খেলতে নামা স্বাগতিক সেনাপতি তুলে নেন ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরি। তিন অঙ্ক ছোঁয়ার পরপরই অবশ্য প্যাভিলিয়নে ফেরেন ম্যাথুস। ১০২ রানে স্টুয়ার্ট বিনির বলে মুরলি বিজয়ের হাতে ক্যাচ তুলে দেন। ১৬৭ বলের ইনিংসটি ১২টি চার দিয়ে সাজান তিনি। ২০১৩ সালে নেতৃত্ব পাওয়ার পর এটি তার পঞ্চম সেঞ্চুরি; যা এ সময়ে অধিনায়ক হিসেবে সর্বাধিক সেঞ্চুরির রেকর্ডও। তৃতীয় উইকেটে লাহিরু থিরিমান্নের সঙ্গে সর্বোচ্চ ১২৭ রান যোগ করেন ম্যাথুস। ভারতীয় বোলারদের চমৎকার নিয়ন্ত্রণের মুখে আর কোন বড় জুটি গড়ে উঠেনি। ব্যক্তিগত ৬২ রানে পেসার ইশান্ত শর্মার শিকারে পরিণত হন থিরিমান্নে। ২০তম টেস্টে লঙ্কান সহঅধিনায়কের চতুর্থ হাফ সেঞ্চুরি এটি। আগের দিনই ৫১ রান করে ফেরেন ওপেনার কুশল সিলভা। যার বিদায় ঘিরে এত আয়োজন সেই সাঙ্গাকারা অবশ্য হতাশ করেন। ব্যক্তিগত ৩২ রানে স্পিনার আশ্বিনের বলে রাহানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তিনি। অতিথিদের হয়ে স্পিনার মিশ্র ৪, রবিচন্দ্রন আশ্বিন ২, পেসার ইশান্ত শর্মা ২ ও উমেশ যাদব নেন ১টি করে উইকেট। ৮৭ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় ভারত। ২ রানে ধাম্মিকা প্রসাদের বলে বোল্ড হন প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান লোকেশ রাহুল। এরপর আর বিপদ ঘটতে দেননি বিজয়-রাহানে। ২৮.৩ ওভারে অবিচ্ছিন্ন দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৬৭ রান যোগ করেন তারা। প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থাকার পর গত নয় বছরে কলম্বোর পি সারা ওভালে কোন দলই হারেনি। দারুণ অবস্থায় দাঁড়িয়ে ক্রিকেটের মোড়লরা কি পারবে ইনিংস ঘোষণার মতো অবস্থায় পৌঁছতে, নাকি গলের মতো ভেঙ্গে পড়বে হুড়মুড় করে? সেটিই এখন দেখার বিষয়।