২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্রোতে ভেসে গেছে ফেরি টাপলু

  • দুই শতাধিক যাত্রী বিপাকে

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ নাব্যর অভাবে লৌহজং টার্নিং থেকে শিমুলিয়ার ফেরার পথে স্রোতের টানে ৫ কি.মি. দূরে ডাউনে পালেরচর ভেসে গেছে ফেরি টাপলু। যানবাহন ভর্তি ফেরিটি তীব্র স্রোতে ফিরতে পারছে না। এটি উদ্ধারে তিন ফেরি উদ্ধারকারী জাহাজ ও একটি ফেরি পৌঁছেছে। তবে স্রোতের গতি সাড়ে ৬ নটিকেল মাইল। আর উদ্ধারকারী জাহাজ ও ফেরি সব মিলিয়ে গতি প্রায় ৭ নটিকেল মাইল। তাই স্রোতের প্রতিকূলে মাত্র আধা নটিকেল মাইল গতিতে অর্থাৎ অতি ধীরে এগুচ্ছে। এতে ফেরিতে আটকা পরা যাত্রীরা পরেছে বিপাকে। বিআইডব্লউটিসির এজিএম আশিকুজ্জামান জানান, বেলা ১০টার পরে ফেরিটি ২০ যান ও দুই শতাধিক যাত্রী নিয়ে রওনা দেয়। কিন্তু লৌহজং টার্নিংয়ে কম পানি থাকায় জোয়ারেও এটি পার হতে পারেনি। পরে ফিরে আসার পথে প্রবেল স্রোতের কবলে পড়ে। এই টানা ফেরির টাক জাহাজ স্রোতের সঙ্গে পাল্লা দিতে না পারায় ভাসিয়ে নিয়ে যায় ডাউনে।

সিলেটে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পুলিশের মৃত্যু

স্টাফ রিপোটার, সিলেট অফিস ॥ শনিবার দুপুর ১২টা সিলেট মহানগরীর বিমানবন্দর থানার এক পুলিশ সদস্য হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। নিহত রফিকুল ইসলাম বিমানবন্দর থানায় উপ-পরিদর্শক (এসআই) পদে কর্মরত ছিলেন। পুলিশ সূত্রে জানা যায় শনিবার দুপুরে কর্তব্যরত অবস্থায় রফিকুল ইসলাম হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার রফিকুলকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মীসহ বিদ্যুতস্পৃষ্টে মৃত্যু দুই

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও, ২২ আগস্ট ॥ ঠাকুরগাঁওয়ে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে ফুলবাবু (৪৩) নামে কৃষক ও জামরুল (২৭) নামে পল্লী বিদ্যুতের কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দুপুর ২টার দিকে সদর উপজেলার জগন্নাথপুর ইউনিয়নের চ-িপুর গ্রামে ও বিকেলে আউলিয়াপুর ইউনিয়নের শাসলা পিয়ালা গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ফুলবাবু চ-িপুর গ্রামের তিলক চাঁদের এবং জামরুল ভূল্লি কুমারপুর গ্রামের মৃত হবিবরের ছেলে। ফুলবাবুর পরিবারের লোকজন জানান, বৃষ্টিতে টিনের ঘরে বিদ্যুত লাইনের সংযোগ লেগেছিল। দুপুরে আমন ধানের ক্ষেতে কাজ শেষে বাড়ি ফিরে টিনের ঘরে হাত দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে যান তিনি। অপরদিকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শাসলা পিয়ালা গ্রামে পল্লী বিদ্যুতের বিচ্ছিন্ন তারের সংযোগ দিতে গিয়ে পিলারে ওপরে উঠে কাজ শুরু করে জামরুল।