১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কাল পদাতিকের ‘ম্যাকবেথ’ ॥ মঞ্চের আলোক শিল্পী আব্দুল মালেকের চিকিৎসা সহযোগিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাংস্কৃতিক অঙ্গনে যারা কাজ করেন স্বাভাবিক কারণে সবাই তাদের চেনেন। শিল্পী হিসেবে এ অঙ্গনের মানুষরা স্বীকৃতি পেলেও সংকটকালীন বা অসুস্থকালীন তাদের ভাগ্যে জোটে অবহেলা। এক্ষেত্রে শিল্পীরাই শিল্পীদের পাশে এসে দাড়ান। অসুস্থ শিল্পীর সাহাযার্থে শিল্পীরা করেন কনসার্ট বা নাটকের বিশেষ প্রদর্শনী। আর্তমানবতার সেবা হিসেবে দুস্থ শিল্পীকে সহযোগিতা করেন শিল্পীরাই। তবে সামর্থের সীমাবদ্ধতার কারণে অনেক সময় সঠিক সাহায্য সহযোগিতা পান না অসহায় শিল্পীরা। এই অবস্থায় সবচেয়ে বেশি অবহেলার শিকার হোন নেপথ্যের শিল্পীরা। বিশেষ করে যারা মঞ্চের নেপথ্যে থেকে শিল্পরূপ প্রকাশের সহযোগি হিসেবে কাজ করেন, শিল্প রসদ যোগান। তেমনি এক নেপথ্য কর্মী মঞ্চ আলোকশিল্পী আব্দুল মালেক। আগামীকাল সোমবার সন্ধ্যা ৭টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হবে পদাতিক নাট্য সংসদের ৩৬তম প্রযোজনা নাটক ‘ম্যাকবেথ’। এদিন নাটকের ৩০তম মঞ্চায়ন হবে। দল সূত্রে জানা গেছে এ প্রদর্শনী থেকে প্রাপ্ত অর্থ মঞ্চের আলোক শিল্পী আব্দুল মালেকের চিকিৎসার সহযোগিতায় প্রদান করা হবে। উইলিয়াম শেক্সপিয়রের কালজয়ী ‘ম্যাকবেথ’ নাটকের অনুবাদ করেছেন সৈয়দ শামসুল হক। নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন সুদীপ চক্রবর্তী। ম্যাকবেথ নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন শামছি আরা সায়েকা, মশিউর রহমান, হামিদুর রহমান পাপ্পু, শাখাওয়াত হোসেন শিমুল, ইকরাম, শুভ, জনি, রাসেল, ওয়ালিদ, জুয়েল, জয়, তন্ময় ও নাজিম। নাটকে পোশাক পরিকল্পনায় ওয়াহিদা মল্লিক জলি, সঙ্গীত শিশির রহমান, আলো অতিকুল ইসলাম জয় ও মঞ্চ পরিকল্পনা সুদীপ চক্রবর্তী। নাটকের কাহিনীতে দেখা যাবে স্কটিশ সেনাপতি ম্যাকবেথ যুদ্ধ জয় করে ফিরে আসার পথে একদল রহস্যময় শক্তি তাদের পথরোধ করে ভবিষ্যদ্বাণী উচ্চারণ করে বলেছিল, ম্যাকবেথ হবে কডোর প্রধান ও পরে রাজা এবং ব্যাংকো হবে রাজার আদি পিতা।

ম্যাকবেথের চিঠি পেয়ে লেডি ম্যাকবেথ জানতে পারে বিস্তারিত, উচ্চাকাক্সক্ষা জন্ম নেয়। ম্যাকবেথকে প্ররোচিত করে রাজা ডানকানকে হত্যার। নিজ বাড়িতে রাজাকে হত্যা করে সিংহাসনে বসেন ম্যাকবেথ। রাজ হত্যার দায় কৌশলে এড়াতে একে একে হত্যা করেন ডানকানের দেহরক্ষীদ্বয়, ব্যাংকো, ম্যাকডাফের স্ত্রী-সন্তানরা। রহস্যময় শক্তিদের ভ্রান্তিতে ম্যাকবেথ ভুলে যায় যে ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয়। লেডি ম্যাকবেথ অনুতাপে দগ্ধ ও অসুস্থ হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেন। ইংল্যান্ডের রাজার সহায়তায় নিজ রাজ্য পুনরুদ্ধারে ডানকান পুত্রদ্বয় ম্যালকম ও ডোনালবেইন ম্যাকবেথ বাহিনীকে পরাজিত করে এবং ম্যাকডাফের অস্ত্রের আঘাতে সমাপ্তি ঘটে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে থাকা এক স্বেচ্ছাচারী ম্যাকবেথের। প্রসঙ্গত, অভিনয় এবং আঙ্গিক নির্মাণের গুণে পদাতিকের ‘ম্যাগবেথ; নাটকটি ইতোমধ্যে ঢাকা এবং ঢাকার বাইরে মঞ্চায়নের পর ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে।