১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নজরুলের মৃত্যু নেই ॥ ইয়াসমিন মুশতারী

শিল্পী ইয়াসমিন মুশতারী। সঙ্গীত সাধনাই যার জীবনের ব্রত। জন্ম ও বেড়ে ওঠা সঙ্গীত পরিবারে। নিরলস চেষ্টা ও অদম্য ইচ্ছাকে আঁকড়ে ধরে যিনি এখনও সঙ্গীত সাধনা করে চলেছেন। নজরুল সঙ্গীতের অমিয় ধারায় নিজেকে শিক্ত করার পাশাপাশি সবার মাঝে ছড়িয়ে দিচ্ছেন তাঁর সঙ্গীতলব্ধ জ্ঞান। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৩৮তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে চ্যানেল আইয়ের ‘ঘরে ঘরে গানের উৎসব’ অনুষ্ঠানে আজ বেলা আড়াইটায় নজরুল সঙ্গীত পরিবেশন করবেন গুণী এই শিল্পী। শুরু থেকে একটানা বিকেল পৌনে ৫টা পর্যন্ত তিনি শ্রোতাদের গান শোনাবেন। দীর্ঘ বিরতির পর তিনি চ্যানেল আইয়ের পর্দায় সরাসরি শ্রোতাদের মুখোমুখি হচ্ছেন। কথা হয় শিল্পীর সঙ্গে।

ঘরে ঘরে গানের উৎসব অনুষ্ঠানের পরিবেশনা সম্পর্কে বলুন

ইয়াসমিন মুশতারী : আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণবার্ষিকী উপলক্ষে এ আয়োজন। কাজেই নজরুলের গানই করব। আমাকে দীর্ঘক্ষণ এ অনুষ্ঠানে গান করতে হবে। নজরুলের সৃষ্টির বিশাল ভা-ারের কিছু অংশ শ্রোতাদের শোনানোর চেষ্টা করব। তাঁর গানেই তাঁকে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানাব। এর মধ্যে আনন্দ ও বেদনার গানও থাকবে।

নজরুলের জন্ম ও প্রয়াণ বার্ষিকীকে ঘিরে অনুষ্ঠান সম্পর্কে আপনার বক্তব্য কি?

ইয়াসমিন মুশতারী : আমি মনে করি সৃষ্টিশীল মহামানবদের কখনও মৃত্যু হয় না। শরীরীয়ভাবে হয়ত তিনি আমাদের মাঝে থাকেন না, কিন্তু থেকে যায় তার সৃষ্টি। কাজী নজরুল ইসলামের মৃত্যু নেই। নজরুলও তেমন এক ব্যক্তি যিনি তাঁর সৃষ্টির মধ্য দিয়ে সব সময় আমাদের মাঝে আছেন, থাকবেন। বাঙালী সব সময় উৎসব বা অনুষ্ঠান প্রিয়। বিশেষ করে এ কারণেই এই সময় উৎসবগুলো করা হয়। কিন্তু আমরা যারা রবীন্দ্রসঙ্গীত বা নজরুলসঙ্গীত চর্চা বা গবেষণা করি, তারা সব সময় নীরবেই এ নিয়ে কাজ করে চলেছি। আমাদের এ কাজগুলো দৃশ্যমান নয়। তবে উচিত মহামানবদের শুধুমাত্র জন্ম ও মৃত্যুকে ঘিরে নয়, সারা বছরজুড়ে তাঁদের নিয়ে অনুষ্ঠান করা উচিত।

নজরুল সঙ্গীতের বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে বলুন...

ইয়াসমিন মুশতারী : এখন আমাদের দেশে নজরুল সঙ্গীত তথা নজরুলচর্চা অনেকাংশে বেড়েছে। নতুন প্রজন্মের অনেক প্রতিভাবানরাও ভাল এবং নিষ্ঠার সঙ্গে গান করছে। তবে আমি মনে করি এই প্রচেষ্টাকে ধরে রাখতে হলে শিল্পীদের পাশাপাশি অন্যান্য প্রতিষ্ঠানেরও পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন। নজরুলের গানের আরও চর্চা ও প্রসার ঘটাতে প্রগতিশীল সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

নতুনরা কেমন গাইছে...

ইয়াসমিন মুশতারী : আমি গানের ব্যাপারে নিজেকে সব সময় শিক্ষানবিস মনে করি। সে অবস্থান থেকে বলতে পারি, অনেকেই ভাল গাইছে, নজরুলের গানের প্রসারও বেড়েছে। তবে নতুন শিক্ষার্থীদের আরও বেশি যতœবান হতে হবে। নজরুলের গানের আদি রেকর্ড খুব মনোযোগের সঙ্গে বেশি করে শুনতে হবে। সেই স্পিরিটের সঙ্গে নিজের সত্তাটাকে মিলাতে পারলে আরও ভাল হবে।

আপনার নতুন এ্যালবাম কবে আসবে?

ইয়াসমিন মুশতারী : কয়েক বছর আগে ইবরার টিপুর সুর ও সঙ্গীতায়োজনে আমার প্রথম আধুনিক গানের এ্যালবাম ‘সেদিনের এক বিকেলে’ ব্যাপক সাড়া ফেলে। সেই থেকে আরেকটি আধুনিক গানের এ্যালবামের চাহিদা ছিল শ্রোতাদের পক্ষ থেকে। যে কারণে নতুন আরেকটি আধুনিক গানের এ্যালবাম নিয়ে শিগগিরই শ্রোতাদের কাছে হাজির হব। পাশাপাশি আরেকটি নজরুল সঙ্গীতের এ্যালবামের কাজও শিগগিরই শুরু করব।

-গৌতম পাণ্ডে