২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কেরানীগঞ্জে পুলিশের সঙ্গে গুলিবিনিময়ে ডাকাত নিহত

কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের খেজুরবাগে সাতপাখি এলাকায় পুলিশÑডাকাত গোলাগুলিতে ইউসুফ আলী (৩৫) নামে এক ডাকাত মারা যায়। স্থানীয়রা ২ ডাকাতকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে সোপর্দ করে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ১টি বিদেশী পিস্তলসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার রাত পৌনে ২টার সময় সাতপাখি মুসলিমনগর এলাকায় ৮/৯ জনের একটি ডাকাতদল ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান ওই এলাকায় অভিযান চালায়। ডাকাতদল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে ডাকাতদের লক্ষ্য করে পাল্টাগুলি ছুড়লে উভয় পক্ষের মধ্যে ২০/২৫ মিনিট গুলিবিনিময় হয়। ওই সময় স্থানীয় লোকজন দৌড়ে হাতে নাতে ইসমাইল হোসেন (৩২) ও সোহরাব হোসেন নামে (৩৪) দুই ডাকাতকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। পরে পুলিশ ওই এলাকা তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ইউসুফ আলীকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মিটফোর্ড হাসপাতালে পাঠায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সুলতানা বেগম (২৬) অভিযোগে বলেন, পুলিশ আমার স্বামীকে ধরে নিয়ে ৩ লাখ টাকা দাবি করে। আমি ৫০ হাজার টাকা যোগাড় করেছিলাম কিন্তু শনিবার রাতে আমার স্বামীকে নিয়ে পুলিশ গুলি করে হত্যা করে। এ ব্যাপারে দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, নিহত ডাকাত ইউসুফ আলীর পিতার নাম আইউব আলী, তার গ্রামের বাড়ি ঢাকা জেলার দোহার থানার হাজার বিঘা এলাকায়। তার বিরুদ্ধে ঢাকা দোহার ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় ৮টি মামলা রয়েছে।