২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠক বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসায় ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে উন্নয়নের জন্য প্রশংসা করেছে যুক্তরাজ্য। দেশটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ভবিষ্যতেও তারা বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত। রবিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে এক বৈঠকে যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ডেসমন্ড সোয়েন এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ঢাকায় সফররত যুক্তরাজ্যের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ডেসমন্ড সোয়েন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী বাংলাদেশে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, স্যানিটেশন, সুশাসন, জলবায়ু পরিবর্তন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি খাতে সহযোগিতার জন্য যুক্তরাজ্যের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এ সময় যুক্তরাজ্যের উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে উন্নয়নের প্রশংসা করেন। ভবিষ্যতেও দেশটি বাংলাদেশের উন্নয়নে সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রয়েছে বলে জানান তিনি।

ঢাকার যুক্তরাজ্য হাইকমিশন জানিয়েছে, তিন দিনের সফরে রবিবার ঢাকা এসেছেন ডেসমন্ড সোয়েন। বাংলাদেশে অবস্থানকালে ঢাকার উপকণ্ঠে যুক্তরাজ্যের অর্থায়নে পরিচালিত প্রকল্প পরিদর্শন করবেন তিনি।

২০১৪ সালের ১৫ জুলাই ডেসমন্ড সোয়েন আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান। তিনি ব্রিটেনের কনজারভেটিভ পার্টির নির্বাচিত এমপি। সফরকালে ডেসমন্ড সোয়েন একাধিক মন্ত্রী ও উচ্চপদস্থ সরকারী কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাত করবেন। এসব সাক্ষাতে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত করতে কিভাবে সহায়তা করা যায় সে বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করবেন। ব্রিটিশ মন্ত্রী আগামী ২৫ আগস্ট রাজধানীতে সাংবাদিকদের ব্রিফ করবেন।

বাংলাদেশ সফরকালে ব্রিটিশ প্রতিমন্ত্রী রাজধানীর কড়াইল বস্তি এলাকায় তৈরি পোশাক কারখানা পরিদর্শন করবেন। এছাড়া ঢাকা ও ঢাকার বাইরে ব্রিটেনের সহায়তায় বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন করারও কথা রয়েছে।

ব্রিটিশ উন্নয়ন মন্ত্রী ঢাকায় আসার বিষয়ে বলেছেন, ২০১৫ সাল বাংলাদেশের জন্য একটি উন্নয়নের বছর। এই সময়ে বাংলাদেশে আসতে পেরে আমি অত্যন্ত আনন্দিত। যুক্তরাজ্য বাংলাদেশের সঙ্গে গভীর সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী। বাংলাদেশে কয়েকদিন সফরকালে যুক্তরাজ্যের সহায়তা প্রকল্প পরিদর্শন করতে আগ্রহী বলে তিনি জানিয়েছেন।