২৪ আগস্ট ২০১৫

আমাদের সঙ্গী নজরুল

বাঙালীর দৈনন্দিন জীবনে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম এক অপরিহার্য ও অনস্বীকার্য নাম। তাঁর কবিতা-গান যেমন বাঙালী সত্তাজুড়ে এক বিশাল সমুদ্রমথিত অবগাহন সৃষ্টি করে চলেছে যুগ যুগ ধরে, তেমনি বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুলের জীবনযাপন তথা পোশাকী অনুষঙ্গটিও নতুন প্রজন্মের নিত্য চলমান পথের প্রসন্ন বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাঁর সাহিত্যকর্ম যেমন বাঙালীকে নিরন্তর অভিভূত করে রেখেছে, তেমনি তাঁর জীবদ্দশায় যেভাবে জীবন ধারণ করতেন তার ছাপও পড়েছে প্রজন্মের লাইফস্টাইলে। কাজী নজরুল যখন কারও মানসপটে ভেসে ওঠেন তখনও স্বভাবতই তাঁর কয়েকটি চিরচেনা দৃশ্য আবির্ভূত হয়। যে ছবির মধ্যে অন্যতম হলো- বাবরী দোলানো ঝাঁকড়া চুলের নজরুল। কামানের গায়ে হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা নজরুল। বংশীবাদনরত ধ্যানমগ্ন নিমীলিত চোখের অপূর্ব নজরুল এবং বুকে-পিঠে জড়িয়ে রাখা শাল আবৃত নজরুল। উল্লেখিত ছবিগুলো নিয়ে ভাবলেই অনুধাবন করা যায় যে, বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বল লক্ষত্র কবি কাজী নজরুল ইসলাম কবিতায়, গানে, জীবনাচরণে ছিলেন প্রবলভাবে আধুনিক মনোভাবাপন্ন। একইভাবে তাঁর পোশাক, হেয়ার স্টাইল, জীবনবোধ তথা সবকিছুতেই একজন ফ্যাশনেবল অনুকরণীয় নজরুলকে খুঁজে পাওয়া যায়। যদিও এটি ছিল কবি কাজী নজরুল ইসলামের সহজাত বৈশিষ্ট্যম-িত বিষয়। কাজী নজরুলের সেই ন্যাচারাল জীবনাচারের অনুষঙ্গগুলো আজ চলমান ফ্যাশন ধারায় অত্যন্ত নান্দনিকভাবে চিত্রিত হচ্ছে বাক্সময় আর মোহনীয় ঔজ্জ্বল্যে। কাজী নজরুলের জীবনবোধের প্রতিটি গ্রন্থি আজ সাহিত্যের সর্বত্র অবিস্মরণীয়ভাবে যেমন বরণীয়, তেমনি তাঁর প্রকৃতিগত জীবনধারণের ছোট ছোট বিষয়ও নিপুণ শিল্পময়তায় ফ্যাশনের চলতি সেনসেশনে স্পন্দন তুলছে নিবিড় মগ্নতায়।

কবি, সঙ্গীতকার,গায়ক, চলচ্চিত্র নির্মাতা, সৈনিক তথা জীবনের প্রতিটি বাঁকে বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল এক অনিবার্য রূপে নিজেকে উদ্ভাসিত করে বাংলা কবিতার যেমন দিকনির্দেশনা দিয়ে গেছেন তেমনি-বাঙালীর প্রিয় কবি-জাতীয় কবি কাজী নজরুলকে বুকে ধারণ করে-তথা তাঁর মায়াবী, সম্মোহনী পলক নাপড়া চোখের চাহনি, মুগ্ধ মুখচ্ছবি এবং তাঁর কবিতার অজস্র প্রিয় পঙ্ক্তিকে তুলির আঁচড়ে, ব্রাশের টানে বুকের ঠিক কাছে এঁকে এঁকে কাজী নজরুলকে করে তুলেছেন প্রত্যহের ছায়াসঙ্গী।

আসছে ১২ ভাদ্র জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে জাতীয় ও সাংগঠনিকভাবে স্মরণ করা হবে কবি কাজী নজরুলের সাহিত্যকর্মসহ বিভিন্ন বিষয়। বর্ণাঢ্যরূপে পালিত হবে দেশব্যাপী কাজী নজরুলের মৃত্যুবার্ষিকী। অন্য রকম এক আমেজে ছেয়ে যাবে ঢাকা, ত্রিশাল, দরিরামপুরসহ বাংলার বিভিন্ন প্রাঙ্গণ। মৃত্যুবার্ষিকীতে কবিকে নিবেদন করে আয়োজন চলছে নানা অনুষ্ঠানের। প্রিন্ট মিডিয়া থেকে শুরু করে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াও বিভিন্ন আয়োজনের মধ্য দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবে-বাংলার এই প্রবাদপ্রতিম কবি-বাঙালীর প্রাণের-গানের এবং জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে। সর্বত্র যখন চলছে উৎসবমুখী নজরুলীয় বর্ণময় আয়োজন, তখন কাজী নজরুলের বর্ণিল জীবন নিয়ে ফ্যাশন হাউসগুলোও এক ভিন্ন মাত্রায় কাজী নজরুলকে সবার সামনে উপস্থাপনের লক্ষ্যে বিপুল উদ্যোগ সম্পন্ন করেছে। দেশের প্রতিষ্ঠিত ফ্যাশন হাউসগুলো বছরধরেই টি শার্ট, ফতুয়া, পাঞ্জাবিতে নজরুলের সেই চিরচেনা অভিব্যক্তিসম্পন্ন মুখাবয়ব এবং তাঁর কবিতার উদ্ধৃতিকে অঙ্কনের মাধ্যমে পোশাকে এক অনন্য নজরুলকে ফুটিয়ে তোলার ক্ষেত্রে দিচ্ছে ফিনিশংটাই। ইতোমধ্যে ফ্যাশন ট্রেডে নজরুল বিশালভাবে সমাদৃত এক অনুষঙ্গ ক্রমশ সমাদৃতের ধারায় কাজী নজরুলের প্রতিচ্ছবি ও কাব্য পঙক্তি পেয়েছে এক নতুন মাত্রা এবং সৃষ্টি করেছে দিগন্তবিস্তৃত আবেদন।

নিদারুণ বোহেমিয়ান মনোভাবী কবি কাজী নজরুল বাঙালী ও বাংলা কবিতার এক প্রবাদ মানুষ হিসেবে বাংলা সাহিত্যের আকাশ আলোকিত করে গেছেন। তাঁর অমর সৃষ্টি-সৌন্দর্য যেমন বাঙালীর জাতীয় জীবনকে যেমন করেছে সমৃদ্ধ, তেমনি তাঁর জীবনধারা থেকে অনেক উপাদান উদ্ভাসনের মধ্য দিয়ে রোজকার জীবনধারায় নজরুলকে নান্দনিক রূপে উপস্থাপনের কাজটি অনেক আগে থেকেই করা হচ্ছে। বাঙালীর অতি কাছের, অতি প্রিয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম যেমন এক প্রাতঃস্মরণীয় নাম, তেমনি তাঁর জীবনের প্রতিটি বাঁকে বাঁকে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো যেন কিংবদন্তীর মতো মানুষের মুখে মুখে উৎসারিত হয়। শৈশব, কৈশোর এবং যৌবনের নজরুল বাঙালীকে বিমোহিত করে রেখেছে বহুকাল ধরে। তাঁর গান, কবিতা, গল্প, উপন্যাস, নাটক শুধু বাংলা নয়, বিশ্ব সাহিত্যেকে করেছে সমৃদ্ধ; একইভাবে তাঁর জীবন যাপনও এক অনুকরণীয় উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হিসেবে স্মরণীয় এবং বরণীয়।

ছবি : আরিফ আহমেদ

মডেল : নিলয় ও নাদিয়া নদী