২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাছের কয়েক রকম

টক ঝাল মিষ্টি কাতল মাছ ভাজা

উপকরণ : কাতল মাছ ৫-৬ টুকরা পেঁয়াজ বেরেস্তা ১-২ কাপ, মরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া ১-২ চা-চামচ, আদা-রসুন বাটা ১ চা-চামচ, গরমমসলা গুঁড়া ১-২ চা-চামচ, চিলি সস ১ টেবিল চামচ, তেঁতুলের কাথ ১ টেবিল চামচ, চিনি ১ চা-চামচ, ঘি ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ ও তেল পরিমানমতো।

প্রণালী : প্রথমে মাছের টুকরাগুলো ধুয়ে লবণসহ সব গুঁড়া ও বাটা মসলা দিয়ে মেখে রাখতে হবে ১-২ ঘণ্টা। এরপর প্যানে তেল গরম করে মাছগুলো মচমচে করে ভেজে তুলতে হবে। এবার অন্য প্যানে ঘি গরম করে তাতে বেরেস্তা, ভাজা মাছ, চিলিসস, তেঁতুলের কাথ, চিনি ও সামান্য পানি দিয়ে ৫ মিনিট নেড়েচেড়ে ভাজতে হবে। ভাজা ভাজা হলে ধনেপাতা কুচি দিয়ে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন। হয়ে গেল মজাদার টক-ঝাল মিষ্টি কাতল মাছ ভাজা। ধন্যবাদ।

ফিশ বল শাসলিক

উপকরণ : যে কোন বড় মাছ ১-২ কেজি, সিদ্ধ আলু বড় ১টি পনির কিউব করা ৫০ গ্রাম, পাউরুটি ১ পিস, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চাম কাবাব মসলা ১ চা-চামচ, ডিমের কুসুম ১টি, ডিমের সাদা অংশ ১টি, বেসন ১ টেবিল চামচ লবণ পরিমানমতো, ভাজার জন্য তেল ১ কাপ।

প্রণালী : প্রথমে মাছ সিদ্ধ করে কাঁটা বেছে রাখতে হবে। এবার সিদ্ধ আলু চটকে মাছের সঙ্গে মিশাতে হবে। এবার পাউরুটি হাত দিয়ে গুঁড়া করে তেল ও ডিমের সাদা অংশ বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে ভালমতো মিশিয়ে ছোট ছোট বল বানাতে হবে। সব বল রেডি হয়ে গেলে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিতে হবে ১ ঘণ্টা। তারপর বের করে ডিমের সাদা অংশে চুবিয়ে ডুবো তেলে সব বলগুলো ভেজে তুলতে হবে। এবার সব ভাজা হয়ে গেলে শাসলিক কাঠিতে বল ও কিউব করা পনির আবার ফিশ বল দিয়ে সারি করে সুন্দর করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন। মজাদার ফিশ বল শাসলিক। ধন্যবাদ।

ইলিশ মাছের চাপালি কাবাব

উপকরণ : ইলিশ মাছ বড় ১টি, পনির গ্রেড করা ৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ বেরেস্তা ২ টেবিল চামচ, কাবাব মসলা ১ চা-চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা-চামচ, লবণ পরিমানমতো, ডিমের সাদা অংশ ১টি, ভাজার জন্য ঘি পরিমানমতো

প্রণালী : প্রথমে ইলিশ মাছ সিদ্ধ করে কাঁটা বেছে রাখতে হবে। এবার ঘি ও ডিমের সাদা অংশ বাদে সব উপকরণ মাছের সঙ্গে মিশিয়ে ভালমতো মথে হাত দিয়ে চেপে চেপে কাবাবের আকারে গড়ে নিতে হবে। এবার ডিমের সাদা অংশে চুবিয়ে চুলায় প্যান দিয়ে ঘি গরম করে চেপে চেপে ভাজতে হবে। একপিঠ ভাজা হলে উল্টিয়ে অন্যপিঠ লাল করে ভেজে তুলতে হবে। এবার সুন্দর করে সাজিয়ে গরম ভাত কিংবা পোলাও এর সঙ্গে পরিবেশন করুন মজাদার ইলিশের চাপালি কাবাব।

আস্ত তেলাপিয়া মাছের কাবাব

উপকরণ : তেলাপিয়া মাছ বড় ১টি, সিদ্ধ আলু বড় ১টি, পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ৪টি, গোলমরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, বিস্কুটের গুঁড়া ১ কাপ।

প্রণালী : প্রথমে আস্ত মাছটাকে অল্প পানিতে সিদ্ধ করতে হবে। এবার বড় কাঁটা থেকে মাছটাকে সাবধানে আলাদা করে তুলে বাকি কাঁটা বেছে রাখতে হবে। এবার সিদ্ধ আলুকে চটকে মাছের সঙ্গে মিশাতে হবে। এবার এতে পেঁয়াজ বেরেস্তা, ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ কুচি, গোলমরিচের গুঁড়া, বিস্কুটের গুঁড়া ও পরিমাণমতো লবণ মিশাতে হবে। এবার ১টি প্যানে অল্প ঘি গরম করে মিশ্রণটি ঢেলে নেড়েচেড়ে কিছুক্ষণ ভাজতে হবে। এবার নামিয়ে মাছের কাঁটার উপর সুন্দর করে সাজাতে হবে যেন পুরটা আস্ত মাছ মনে হয়। এবার ২০০ ডিগ্রী তাপমাত্রায় ওভেনে ১৫ মিনিট রাখতে করতে হবে। তারপর বেড় করে সুন্দর করে সাজিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন দারুণ মজার তেলাপিয়া কাবাব।

ইন্দোনেশিয়ান অরেঞ্জ রুইকারি

যা লাগবে : রুই মাছ বড় ৮ টুকরা, আলু বড় ২টা, পেঁয়াজ কুচি হাফ কাপ, পেঁয়াজ বাটা ১ টেবিল চামচ, কমলার রস ১টার, টক দই ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ বাটা ২ চা-চামচ, আস্ত কাঁচামরিচ ৪টা, আদা-রসুন বাটা ২ চা-চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া হাফ চা-চামচ, তেল হাফ কাপ, লবণ পরিমাণমতো ও চিনি ১ চা-চামচ।

প্রণালি : মাছের টুকরায় হলুদ লবণ মেখে ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে মাছ ভালমতো লাল করে ভেজে তুলে রাখতে হবে। এবার আলু গোল গোল টুকরা করে ভেজে রাখতে হবে। অন্য প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুচি ভেজে সব বাটা মসলা দিয়ে কষিয়ে মাছ ও আলু দিয়ে নেড়ে টক দই দিয়ে কষাতে হবে। এবার কমলার রস দিয়ে ৫ মিনিট ঢেকে রাখুন। ঢাকনা খুলে গোলমরিচ গুঁড়া ও চিনি দিয়ে নেড়ে ২ মিনিট ঢেকে রাখুন। এবার আস্ত কাঁচামরিচ ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে ১ মিনিট ঢেকে রাখুন। এখন গরম গরম ভাত দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার ইন্দোনেশিয়ান অরেঞ্জ রুইকারি।

বোয়াল মাছের ললি

যা লাগবে : বোয়াল মাছের টুকরা ১-২ কেজি, সিদ্ধ আলু বড় ১টি, পাউরুটি ১ পিস, গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, কাবাব মসলা ১ চা-চামচ, ডিমের কুসুম ১টি, ডিমের সাদা অংশ ১টি, পাপরিকা ১ চা-চামচ, লবণ পরিমাণমতো, ভাজার জন্য তেল ১ কাপ।

প্রণালী : প্রথমে মাছ সিদ্ধ করে কাঁটা বেছে রাখতে হবে। এবার সিদ্ধ আলু চটকে মাছের সঙ্গে মিশাতে হবে। এবার পাউরুটি হাত দিয়ে গুঁড়া করে তেল ও ডিমের সাদা অংশ বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে ভালমতো মিশিয়ে ললির আকৃতিতে গড়ে নিতে হবে সবগুলোকে। সব ললি রেডি হয়ে গেলে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিতে হবে ১ ঘণ্টা। তারপর বের করে ডিমের সাদা অংশে চুবিয়ে ডুবো তেলে ভেজে তুলতে হবে। এবার সব ভাজা হয়ে গেলে ললিপপের মতো কাঠিতে গেঁথে সুন্দর করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার বোয়াল মাছের ললি।