২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ম্যানচেস্টার সিটির টানা তিন জয়

  • ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ, টেরির লালকার্ডে নাখোশ মরিনহো, রেকর্ড নিয়ে ভাবছেন না পেলেগ্রিনি;###;এভারটন -২ ম্যানচেস্টার সিটি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে দুরন্ত ছন্দে এগিয়ে চলেছে ম্যানচেস্টার সিটি। রবিবার রাতে দলটি টানা তিন জয়ের স্বাদ পেয়েছে। এ্যাওয়ে ম্যাচে সিটি ২-০ গোলে পরাজিত করে স্বাগতিক এভারটনকে। বিজয়ী দলের হয়ে গোল করেন আলেকজান্ডার কোলারভ ও সামির নাসরি।

ওয়ার্টফোর্ড ও সাউদাম্পটনের মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। আরেক ম্যাচে ওয়েস্টব্রুমউইচকে ৩-২ গোলে হারিয়ে লীগে প্রথম জয়ের দেখা পেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন চেলসি। বর্তমানে তিন ম্যাচ শেষে ৯ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ম্যানচেস্টার সিটি। সমান ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে লিচেস্টার সিটি। একই পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে তিন নম্বরে অবস্থান করছে রেকর্ড শিরোপাধারী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

ওয়েস্টব্রুমউইচকে ৩-০ গোলে হারিয়ে লীগ শুরু করার পর নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শিরোপাধারী চেলসিকেও একই ব্যবধানে হারায় সিটি। অজেয় এই যাত্রা ধরে রাখার লক্ষ্যে এভারটনের মাঠ গুডিসন পার্কে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে সিটি। প্রতিপক্ষের রক্ষণে চাপ ধরে রেখে কয়েকটি ভাল আক্রমণও করে তারা। কিন্তু গোলমুখে আক্রমণগুলো বিকল হয়ে যাচ্ছিল। প্রথমার্ধে খুব বেশি আক্রমণ করেনি স্বাগতিক এভারটন। তবে এই সময়ের মধ্যে গোলের সবচেয়ে ভাল সুযোগটা তারাই পেয়েছিল। বিরতির ঠিক আগ মুহূর্তে ডি বক্সের কিছুটা বাইরে থেকে এভারটনের বেলজিয়ামের স্ট্রাইকার রোমেলু লুকাকুর ফ্রিকিক ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়। দুর্ভাগ্য দলটির, এই গোলটি পেয়ে গেলে হয়ত ম্যাচের ফলাফল অন্য রকমও হতে পারত।

বিরতির পর শুরুতে দু’দলের খেলাতেই ছন্দের ঘাটতি দেখা যায়। সিটি আক্রমণে উঠছিল ঠিকই, কিন্তু স্বাগতিকদের রক্ষণ ভাঙতে পারছিল না। কিছুক্ষণ পর জড়তা ভেঙ্গে গোলের জন্য মরিয়া আক্রমণ শাণাতে থাকে ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির দল। ফল পেতেও বিলম্ব হয়নি। ৬০ মিনিটে কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায় সিটি। কোলারভের করা গোলটিতে দারুণ অবদান রাখেন চলতি মৌসুমেই লিভারপুল থেকে ইতিহাদের ক্লাবে যোগ দেয়া রাহিম স্টার্লিং। ইংলিশ এই মিডফিল্ডার বাঁদিক থেকে ডি বক্সে ঢুকে এক জনকে ফাঁকি দিয়ে কোলারভকে পাস দেন। গোললাইনের কাছে বল পেয়ে কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন সার্বিয়ার এই ডিফেন্ডার। বলের লাইনেই ছিলেন এভারটনের গোলরক্ষক টিম হাওয়ার্ড, কিন্তু তাকে ফাঁকি দিয়ে বল জালের ঠিকানা খুঁজে নেয়। এরপর ম্যাচে ফিরতে প্রচেষ্টা চালাতে থাকে স্বাগতিকরা। কিন্তু ৮৮ মিনিটে ইয়াইয়া তোরের দারুণ পাস থেকে ব্যবধান বাড়িয়ে সিটির জয় নিশ্চিত করেন বদলি হিসেবে নামা ফরাসী মিডফিল্ডার সামির নাসরি। ফলে ম্যাচে ফেরার স্বপ্ন ভেঙ্গে যায় এভারটনের।

দারুণ শুরু করার পর আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে ম্যানচেস্টার সিটি। দলটির সামনে এখন টানা ছয় ম্যাচ জয়ের হাতছানি। তবে এটা নিয়ে ভাবছেন না দলটির কোচ ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনির। এ প্রসঙ্গে পেলেগ্রিনি বলেন, আমি এটি (রেকর্ড) সম্পর্কে জানি। কিন্তু আমার কাছে নয় পয়েন্ট গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ভালভাবে লীগ শেষ করতে চাই। কিন্তু রেকর্ড নিয়ে ভাবছি না, কারণ ছয় ম্যাচ জয় সহজ না। এই ম্যাচেও রাহিম স্টার্লিংয়ের খেলায় মুগ্ধ হয়েছেন পেলেগ্রিনি। বলেন, স্টার্লিং দুর্দান্ত খেলে চলেছে। ম্যাচের পার্থক্য অনেকটা সে গড়ে দিচ্ছে।

অন্যদিকে ওয়েস্টব্রুমউইচকে হারিয়ে লীগে প্রথম জয় পেলেও চটেছেন চেলসি কোচ জোশে মরিনহো। কেননা দলটির অধিনায়ক জন টেরি ম্যাচে লালকার্ড দেখেন। ম্যাচের ৫৪ মিনিটে প্রতিপক্ষের সলোমন রন্ডোনকে মারাত্মক ফাউল করলে রেফারি সরাসরি লালকার্ড দেখান টেরিকে। কিন্তু মরিনহোর দৃষ্টিতে এটি লালকার্ড দেখানোর মতো অপরাধ ছিল না। তাই তিনি এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এফএর কাছে আপীল করার ঘোষণা দিয়েছেন। ম্যাচ শেষে মরিনহো বলেন, স্বাভাবিকভাবে এটা বাজে একটা সিদ্ধান্ত। এমন সিদ্ধান্ত মেনে নেয়া কঠিন। আমরা চিন্তা করছি আপীল করার।