১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হার দিয়ে মৌসুম শুরু তিন পরাশক্তির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অঘটন দিয়ে শুরু হয়েছে এবারের ইতালিয়ান সিরি এ। ২০১৫-১৬ মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হেরেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস, এসি মিলান ও নেপোলি। প্রথম দিন ড্র করে রানার্সআপ এএস রোমাও। বড় দলগুলোর মধ্যে শুধু জয়ের দেখা পেয়েছে ইন্টার মিলান। রবিবার অনুষ্ঠিত ম্যাচে উদিনেস ১-০ গোলে হারায় স্বাগতিক জুভেন্টাসকে। একই দিন ফিওরেন্টিনার কাছে ২-০ গোলে এসি মিলান ও সাসসোউলোর কাছে ২-১ গোলে হার মানে নেপোলি। ইন্টার মিলান ১-০ গোলে পরাজিত করে আটালান্টাকে। শনিবার উদ্বোধনী দিনে ভেরোনার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে রোমা। সবচেয়ে বড় অঘটনের জন্ম দিয়েছে উদিনেস। বর্তমান লীগ, কাপ চ্যাম্পিয়ন ও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের রানার্সআপ জুভেন্টাসকে হারিয়েছে তারা। জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে ম্যাচের একমাত্র গোলদাতা উদিনেসের সিরিল কেরেউ। ৭৮ মিনিটে স্প্যানিশ মিডফিল্ডার কোনের দারুণ ক্রসে বল পেয়ে খুব কাছ থেকে লক্ষ্যভেদ করেন ফরাসী এই স্ট্রাইকার। টানা পঞ্চম শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে নামা প্রতিযোগিতার সফলতম ক্লাবটিকে অধিনায়ক জিয়ানলুইজি বুফন মৌসুমের শুরুতেই সতর্ক করে দেন, এবার কাজটা খুব কঠিন হতে যাচ্ছে। গত মৌসুমে ‘ডাবল’ জেতা জুভেন্টাসকে এবার খেলতে হচ্ছে আন্দ্রে পিরলো, কার্লোস তেভেজ, আর্টুরো ভিদালদের মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়দের ছাড়াই। অভিজ্ঞ প্লেমেকার পিরলো যোগ দিয়েছেন নিউইয়র্ক সিটিতে। আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার তেভেজ পাড়ি জমিয়েছেন স্বদেশী ক্লাব বোকা জুনিয়র্সে। আর চিলির তারকা মিডফিল্ডার ভিদাল যোগ দিয়েছেন জার্মানির বেয়ার্ন মিউনিখে। এই তিনজনকে ছাড়া জুভেন্টাসের কাজ যে সহজ হবে না সে প্রমাণ প্রথম ম্যাচেই মিলেছে। মৌসুমের প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে এটা জুভেন্টাসের প্রথম পরাজয়। এর আগে ২০১০ সালে লীগের প্রথম ম্যাচে ব্যারির কাছে এ্যাওয়ে ম্যাচে হেরেছিল জুভরা। ম্যাচ শেষে জুভেন্টাস কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো এ্যালেগ্রি বলেন, সবাইকে এটা মনে রাখতে হবে আমরা নতুন মৌসুম মাত্রই শুরু করেছি। এবারের দলে কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় আছে যাদের মানিয়ে নিতে সময় দিতে হবে। ৭০ মিনিট পর্যন্ত পুরো ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ আমাদেরই ছিল। তবে দুর্ভাগ্য যে প্রথম গোলটি আমরা পাইনি। কিন্তু তাদের গোলটি আমাদের আরও সতর্কতার সঙ্গে রক্ষা করা উচিত ছিল। এরপরও সব কৃতিত্ব উদিনেসের। নিজেদের আক্রমণাত্মক কৌশল দিয়ে আমরা জয়ের চেষ্টা করেছি। কিন্তু তারা প্রথম সুযোগটাকেই কাজে লাগিয়েছে। হতাশা দিয়ে মিশন শুরু হতে পারত ইন্টারেরও। কিন্তু ঘরের মাঠে ইনজুরি সময়ে ম্যানচেস্টার সিটি থেকে ধারে আসা ফরোয়ার্ড স্টিভেন জোভেটিচের একমাত্র গোলে আটালান্টাকে হারায় তারা। আগের দিনের ম্যাচে আলেসান্ড্রো ফ্লোরেনজির গোলে কোন রকমে সমতা নিয়ে মাঠ ছাড়ে রোমা। ম্যাচ শেষে আলেসান্ড্রো বলেন, আমরা ম্যাচটি জিততে পারতাম, নিজেদের পারফর্মেন্স নিয়ে আমরা সন্তুষ্ট।