২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জাপানের ওয়াদুরি উৎসবে প্রশংসিত বাংলাদেশের নৃত্য

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ জাপানের তোকশিমাতে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী ওয়াদুরি নৃত্য উৎসবে অংশ নিয়ে প্রশংসিত হয়েছে বাংলাদেশের নৃত্যশিল্পীদের নৃত্যশৈলী প্রশংসিত হয়েছে। এ উৎসবে বাংলাদেশের ১৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল অংশগ্রহণ করে। উৎসবে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার। নৃত্য পরিচালনায় ছিলেন দেশের জনপ্রিয় নৃত্য পরিচালক কবিরুল ইসলাম রতন। জানা গেছে, জাপানে বাংলাদেশ দলটি ৪টি প্রদর্শনী করে। প্রথমটি ছিল মারুহিসা কোম্পানির চেয়ারম্যান কিমিনোবো হিরাইশি আয়োজিত স্বাগত অনুষ্ঠান। যেখানে জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন, থাইল্যান্ডে জাপানের রাষ্ট্রদূত শিরো সাদোশিমা, কিমিনোবো হিরাইশি ও রামেন্দু মজুমদার বক্তব্য রাখেন। দ্বিতীয় পরিবেশনাটি ছিল এনএইচকে টেলিভিশানের বিশেষ মঞ্চে যেখানে হাইয়ারেন নৃত্য শিল্পীদের সঙ্গে বাংলাদেশ দল নৃত্য প্রদর্শন করে। এটি সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এরপর আওয়া কানকো হোটেলে চেম্বার অব কমার্সের প্রীতি সম্মিলনীতে বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী নৃত্যকলা প্রদর্শন করে দলটি। দুটি পর্বে চূড়ান্ত প্রদর্শনীটি হয় উৎসব স্থলে যেখানে পাঁচ হাজার দর্শক বাংলাদেশ দলের পরিবেশনা উপভোগ করে। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতসহ তোকশিমা ও নারুতো নগরীর মেয়রদ্বয় এবং তোকশিমা প্রিফেকচারের গবর্নরের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন। সাক্ষাতকারে উভয় পক্ষ জাপান ও বাংলাদেশের মধ্যে আরও বেশি সাংস্কৃতিক বিনিময়ের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ওয়াদুরি নৃত্যধারাটির সূচনা হয়েছিল ১৫৮৭ সালে। বর্তমানে এই নৃত্য উৎসব তোকশিমার প্রধান সাংস্কৃতিক উৎসব যেখানে চার দিনব্যাপী নগরীজুড়ে সঙ্গীত ও নৃত্যে মেতে ওঠে নগরবাসী। বাংলাদেশে জাপান দূতাবাসের সহযোগিতায় উৎসব কমিটি বাংলাদেশ দলকে আমন্ত্রণ জানায় এবং বাংলাদেশ, জাপান ও থাইল্যান্ডে পোশাক প্রস্তুতকারী নেতৃস্থানীয় প্রতিষ্ঠান মারুহিসা প্যাসিফিক কোম্পানি লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায় এ সফরের আয়োজন করা হয়।