১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘কাহিলদের সঙ্গে খেলতে পারা সৌভাগ্যের’

  • অভিমত জাতীয় ফুটবল দলের ফরোয়ার্ড জাহিদ হাসান এমিলির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ফিফা বিশ্বকাপ ও এএফসি এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বের ম্যাচের জন্য এবং তার আগে মালয়েশিয়ার বিপক্ষে একটি প্রীতি ম্যাচের জন্য ২৩ ফুটবলারের নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এদের নিয়ে গত রবিবার থেকে শুরু হয়েছে আবাসিক ক্যাম্প। চারদিন অনুশীলন করে আজ বুধবার রাতে ফুটবল দল রওনা হবে মালয়েশিয়ার উদ্দেশে। সেখানে ২৯ আগস্ট স্বাগতিকদের বিপক্ষে একটি প্রীত বা প্রস্তুতি ম্যাচে অংশ নেবে বাংলাদেশ দল। এরপর ৩০ আগস্ট অস্ট্রেলিয়ার পার্থের উদ্দেশে রওনা হবে দলটি। বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচে ৩ সেপ্টেম্বর পার্থে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। মঙ্গলবার বাফুফে ভবন থেকে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব মাঠে অনুশীলনে যাওয়ার আগে কথা হয় জাতীয় দলের তিন পজিশনের তিন ফুটবলারের সঙ্গে। এদের একজন ফরোয়ার্ড জাহিদ হাসান এমিলি। তিনি বলেন, ‘কোন সন্দেহ নেই, বাংলাদেশ এর আগে অস্ট্রেলিয়ার মতো এত শক্তিশালী প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলেনি। তবে এ নিয়ে আমরা ভীত নই। আমরা আসরে দারুণ রোমাঞ্চিত। টিম কাহিলের মতো বিশ্বমানের তারকা ফুটবলারের সঙ্গে খেলতে পারাটা অনেক সৌভাগ্যের বিষয়। এ বিষয়টা আমাদের তাদের বিপক্ষে ভাল খেলতে অনুপ্রেরণা যোগাবে।’ দলে আছেন আরেক ‘জাহিদ’। যার নামের শেষে হোসেন। উইঙ্গার জাহিদ হোসেন অবশ্য চরম বাস্তববাদী, মুখে কিছু বলতে চান না। যা করার করতে চান পা দিয়ে। অনেক পীড়াপীড়ি করার পর লাজুক জাহিদ বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ জিতবে, না হারবে, না ড্র করবে- এটা আগেভাগে বলা মুশকিল। খেলার পরই তা বোঝা যাবে। এ জন্য বলতে চাই, মুখে নয়, যা করার তা করতে চাই পা দিয়ে! জাতীয় দলের গোলরক্ষক রাসেল মাহমুদ লিটন। তিনি বলেন, ‘মালয়েশিয়ার সঙ্গে প্রীতি ম্যাচটাতে যদি জিততে পারি, তাহলে সেই ম্যাচের জয় আমাদের নিঃসন্দেহে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভাল খেলতে উজ্জীবিত করবে। চেষ্টা করব, সেটাই যেন হয়।’ এখন দেখার বিষয়, মালয়েশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে কেমন খেলে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’রা।