২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাদওয়ানাস্কার শুরু জয় দিয়ে, বাউচার্ডের বিদায়

  • কানেক্টিকাট ওপেন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আর মাত্র কয়েকদিন পরেই বছরের শেষ গ্র্যান্ডসøাম আসর ইউএস ওপেন। তার ঠিক আগ মুহূর্তেই নিউ হ্যাভেনে শুরু হয়েছে কানেক্টিকাট ওপেন। এ টুর্নামেন্টের মাধ্যমে শেষ সময়ের প্রস্তুতি সারবেন টেনিস তারকারা। সেই প্রস্তুতির শুরুটা দারুণভাবে করেছেন বিশ্বের সাত নম্বর পোল্যান্ডের তারকা এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানাস্কা। তিনি কানেক্টিকাট ওপেনের প্রথম রাউন্ডে পেয়েছেন দাপুটে জয়। যুক্তরাষ্ট্রের কোকো ভ্যানডেওয়েঘেকে সরাসরি ৬-০, ৬-২ সেটে বিধ্বস্ত করেছেন তিনি। এছাড়াও দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাডিসন কিস ও লুসি সাফারোভা এবং ক্যারোলিনা পিসকোভা। তবে শুরুতেই বিদায় নিয়েছেন কানাডার সুন্দরী টেনিস তারকা ইউজেনি বাউচার্ড।

পোলিশ তারকা রাদওয়ানাস্কার চলতি বছরটা তেমন ভাল যায়নি। সম্প্রতিই রজার্স কাপে তেমন কিছু করতে পারেননি। তবে ইউএস ওপেনের আগে এবার কানেক্টিকাটে তার জন্য নিজেকে পূর্ণোদ্যমে ফিরিয়ে আনার শেষ সুযোগ। শুরুটা ভালভাবেই করেছেন। তার সামনে দাঁড়াতেই পারেননি ভ্যানডেওয়েঘে। প্রথম সেটে আত্মসমর্পণ করেছেন কোন গেম না জিতেই। দ্বিতীয় সেটে অবশ্য প্রথমে টানা দুই গেম জিতে ফিরে আসার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু আর তাকে সুযোগ দেননি রাদওয়ানাস্কা। টানা ৬ গেম জিতে হারিয়ে দিয়েছেন ভ্যানডেওয়েঘেকে। তাকে হারিয়ে দিতে রাদওয়ানাস্কার সময় লেগেছে মাত্র ৬৫ মিনিট। জয়ের পর রাদওয়ানাস্কা বলেন, ‘আমি ভালভাবে শুরু করতে পেরেছিলাম। যা কিছু করতে চেয়েছি সবই আমার জন্য ভালভাবে কার্যকরী হয়েছে। আমি প্রতি বলের দিকে তীক্ষè মনোযোগ রেখেছিলাম।’ দ্বিতীয় রাউন্ডে এ পোলিশ সুন্দরীর মুখোমুখি হবেন ফরাসী তারকা এ্যালিজ করনেটের বিপক্ষে। করনেট তিন সেটের লম্বা লড়াইয়ে হারিয়েছেন কাজাখস্তানের উদীয়মান টেনিস তারকা জুলিয়া পুটিন্টসেভার বিপক্ষে। আরেক ম্যাচে কানাডার বিস্ময় তারকা টেনিস সুন্দরী বাউচার্ড বিদায় নিয়েছেন প্রথম রাউন্ড থেকেই। তিনি ইতালির রবার্টা ভিঞ্চির কাছে বিধ্বস্ত হয়েছেন ৬-১, ৬-০ সেটে।

এ টুর্নামেন্টের অন্য শীর্ষ তারকাদের মধ্যে জয় পেয়েছেন ২০ বছর বয়সী মার্কিন তরুণী ম্যাডিসন এবং ষষ্ঠ র‌্যাঙ্কিংধারী চেক তারকা লুসি সাফারোভা। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের দুই নম্বর মহিলা টেনিস তারকা ম্যাডিসন। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে অবশ্য তিনি ১৯ নম্বরে আছেন। প্রথম চার গেম তিনি হেরে গিয়েছিলেন ইউক্রেনের এলিনা ভিতোলিনার বিপক্ষে। কিন্তু টাইব্রেকে নিয়ে যান ম্যাডিসন দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে। তিনি জেতেন ৭-৬ (৭-৪), ৪-২ সেটে। পিঠের ইনজুরিতে পড়ায় খেলার মাঝেই সরে দাঁড়ান ভিতোলিনা। এরপর চার নম্বর র‌্যাঙ্কিংধারী পেত্রা কেভিতোভার বিপক্ষে লড়বেন তিনি। এ বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে কেভিতোভাকে সরাসরি সেটে হারিয়েছিলেন ম্যাডিসন। আর সাফারোখা মোটামুটি সহজেই জিতেছেন রাশিয়ার ডালিয়া গাভ্রিলোভার বিপক্ষে। তিনি সরাসরি ৬-৩, ৬-৪ ব্যবধানে জয় তুলে নেন। এদিন ৮ নম্বর র‌্যাঙ্কিংধারী পিসকোভাকে জেতার জন্য ঘাম ঝরাতে হয়েছে। তার প্রতিপক্ষ ছিলেন সেøাভাকিয়ার পোলোনা হারকগ। শুরু থেকেই পিসকোভাকে চাপে ফেলেছিলেন এ সেøাভাক তারকা। প্রথম সেট জয়ের পর দ্বিতীয় সেটেও কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বর্তমানে দারুণ ফর্মে থাকা পিসকোভা জয় তুলে নেন ২-৬, ৭-৬ (৭-৫) ও ৬-২ সেটে। টুর্নামেন্টের অষ্টম বাছাই সারা ইরানিকে বিদায় করে দিয়েছেন ফ্রান্সের ক্রিস্টিনা ম্যাডেনোভিচ। তিনি জয় পান ৬-২, ৪-৬ ও ৬-৪ ব্যবধানে।