২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দিবাবার প্রথম, রুডিশার খেতাব পুনরুদ্ধার

  • বিশ্ব এ্যাথলেটিক্স

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চার বছর আগে দেগুতে ৮০০ মিটার দৌড়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন কেনিয়ার ডেভিড রুডিশা। কিন্তু গত আসরে মস্কোয় সেটা হারিয়ে ফেলেন তিনি। এবার বেজিংয়ের বার্ডস নেস্ট তাকে আবার শ্রেষ্ঠত্বের মঞ্চে দাঁড়ানোর উপলক্ষ করে দিল। পুরুষদের ৮০০ মিটারে রুডিশা আবার জিতে পুনরুদ্ধার করেছেন তার বিশ্বসেরার খেতাব। অপরদিকে, প্রথমবারের মতো বিশ্ব এ্যাথলেটিক্স চ্যাম্পিয়নশিপসের স্বর্ণ জিতেছেন ইথিওপিয়ার গেনজেবে দিবাবা। ১৫০০ মিটারের দৌড়ে এ ইথিওপিয়ান তরুণীই ছিলেন ফেবারিট। অবশেষে সেটাই সত্য করলেন। তিনি জয় পেতে সময় নিয়েছেন ৪ মিনিট ৮.০৯ সেকেন্ড। হয়েছেন বিশ্বসেরা।

১৯৯৩ সালে চীনের জুনিজিয়া কু বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন। বিতর্কিত কোচ মা জুনরেনের অধীনে ছিলেন ওই মহিলা দূরপাল্লার দৌড়বিদ। সেই রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েন দিবাবা গত মাসে। তিনি সময় নিয়েছিলেন ৩ মিনিট ৫০.০৭ সেকেন্ড। শুধু ১৫০০ মিটার নয়, ৩০০০ ও ৫০০০ মিটারেরও বিশ্বরেকর্ড দিবাবার দখলে। এর আগে তার বড় বোন টিরুনেশ দিবাবা ৫০০০ মিটারের বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন। সেই পারিবারিক ঐতিহ্যটাই যেন বহন করে যাচ্ছিলেন দিবাবা। সে কারণে এবার বিশ্ব আসরে প্রত্যাশিতই ছিল যে চ্যাম্পিয়ন হবেন ইথিওপিয়ান এ এ্যাথলেট। সেই সম্ভাবনাকে বাস্তব করেছেন মঙ্গলবার হওয়া ফাইনালে।

কেনিয়ার ফেইথ কিপইয়েগন অবশ্য বেশ চ্যালেঞ্জে ফেলেছেন তাকে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি ৪ মিনিট ৮.৯৬ সেকেন্ড সময় নিয়ে রৌপ্য এবং ইথিওপিয়ান বংশোদ্ভূত হল্যান্ডের সিফান হাসান ৪ মিনিট ৯.৩৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করেন।

পুরুষদের ৮০০ মিটারে রুডিশার জয়ের বিষয়ে তেমন কোন সন্দেহ ছিল না। গত অলিম্পিকে তিনি স্বর্ণ জিতেছেন এবং বর্তমানে বিশ্বরেকর্ডধারী। শেষ পর্যন্ত ১ মিনিট ৪৫.৮৪ সেকেন্ড সময় নিয়ে স্বর্ণ জয় করেন তিনি। পোল্যান্ডের এ্যাডাম কেজকট ১ মিনিট ৪৬.০৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে রৌপ্য এবং বসনিয়ার আমেল টুকা ১ মিনিট ৪৬.৩০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জেতেন। লন্ডন অলিম্পিকে স্বর্ণ জয়ের পথে ২০১২ সালে অভূতপূর্ব একটি রেকর্ড গড়েন রুডিশা। তিনি সেদিন ১ মিনিট ৪০.৯১ সেকেন্ড সময় নিয়ে শেষ করেছিলেন। কিন্তু হাঁটুর ইনজুরির কারণে ২০১৩ সালের প্রায় পুরোটাই ট্র্যাকের বাইরে ছিলেন এবং সে কারণে সে বছর মস্কো বিশ্ব এ্যাথলেটিক্সে অংশ নিতে পারেননি।

একই দিনে লংজাম্পে নিজের খেতাব ধরে রেখেছেন ব্রিটেনের গ্রেগ রাদারফোর্ড। অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন এ এ্যাথলেট মৌসুম সেরা ৮.৪১ মিটার পেরিয়ে স্বর্ণ জয় করেন। ৮.২৪ মিটার পেরিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ফ্যাব্রিস ল্যাপিয়ের রৌপ্য এবং স্বাগতিক চীনের জিয়ানান ওয়াং ৮.১৮ মিটার পেরিয়ে ব্রোঞ্জ জয় করেন।

নির্বাচিত সংবাদ