১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সরকারী দলের ছত্রছায়ায় দখলবাজি শুরু হয়েছে ॥ তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারের ছত্রছায়ায় দখলবাজির উৎপাত শুরু হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেন, দখলবাজি সহ্য করব না। অনেকে সরকারী দলের ছত্রছায়ায় দখলবাজি করে যাবেন তা জাসদ মেনে নেবে না। সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয় এমন কিছু জাসদ করতে দেবে না বলেও উল্লেখ করেন দলটির সভাপতি ইনু।

মঙ্গলবার রাজধানীর জিরো পয়েন্টে জাসদ কার্যালয়ের সামনে দলের বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। ‘সন্ত্রাস, নাশকতা, দুর্নীতি, দখলবাজি বন্ধ করÑসুশাসন কায়েম কর’ সেøাগানে এই সমাবেশে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শরিফ নুরুল আম্বিয়া, কেন্দ্রীয় নেতা ও সাংসদ শিরিন আখতার, নুরুল আক্তার, মইনুল আহসান জুয়েল, ওবায়দুল হক চুন্নু, ইকবাল হোসেন খান, মোঃ খালেক, আফরোজা হক রিনা, শরিফ উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, নুরুন নবী, রোকোনুজ্জামান রোকন, জ্যোতি বিকাশ সিকদার প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক জাসদের সভাপতি ইনু আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের জঙ্গী সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জানবাজি লড়াই চলছে। আমরা সেই লড়াইকে বিজয়ের শেষ পর্যন্ত নিয়ে যাচ্ছি। সবাই এ ব্যাপারে একমত। মনে রাখতে হবে কঠিন এই লড়াইয়ে পিছপা হওয়ার কোন সুযোগ নেই। যে কোন মূল্যে বিজয় অর্জন করতে হবে। তিনি বলেন, যখন এ লড়াইয়ে সবাই ব্যস্ত তখন মাঝখানে দলবাজি, দখলবাজদের উৎপাত শুরু হয়েছে। সবখান থেকেই এরকম খবর আসছে। এসব ঘটনায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয়। যারা দখলের সঙ্গে যুক্ত তাদের মনে রাখা উচিত কেউ এ বিষয়টিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখে না।

১৪ দলের অন্যতম শরিক নেতা ইনু বলেন, সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয়, এমন কিছু আমরা হতে দেব না। এসব দলবাজ, দখলবাজদের উৎপাত আমরা সহ্য করব না। স্বাধীনতা পরবর্তীকালে জাসদের ভূমিকা নিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের বক্তব্য নিয়ে পাল্টা বিবৃতি দেয়ার পর মঙ্গলবার শাসক দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দখলবাজির অভিযোগ তুললেন তিনি।

শেখ সেলিমের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় একদিন আগেই জাসদের এক বিবৃতিতে বলা হয়, তা ১৪ দলের ঐক্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করবে। তার আগের দিন এক সমাবেশে শেখ সেলিম বলেছিলেন, স্বাধীনতা পরবর্তীকালে জাসদের ভূমিকা বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের ক্ষেত্র তৈরি করে দিয়েছিল। বৈজ্ঞানিক সমাজতন্ত্রের আওয়াজ তুলে স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ থেকে একটি অংশ জাসদ গড়ে তুলে বঙ্গবন্ধু সরকারের চরম বিরোধিতায় নেমেছিল। তবে ’৮০ এর দশকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোটে যোগ দেয় জাসদ। কয়েকভাবে বিভক্ত হয়ে মাঝে চলে গেলেও এখন আবার আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোটে রয়েছে দলটি, অংশ নিয়েছে সরকারেও।

এদিকে মঙ্গলবার এক অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-সহ নানা দিক উল্লেখ করে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ। তাঁর বক্তব্যে এসব ঘটনার জন্য জাসদসহ ছোট ছোট রাজনৈতিক দলগুলোকে দায়ী করা হয়। ইনু বলেন, বিএনপির নেতাদের পক্ষ থেকে উস্কানিমূলক কথা বলে জঙ্গীবাদ ও তাদের নেত্রী আগুন সন্ত্রাসী খালেদা জিয়াকে বাঁচানোর চেষ্টা চলছে। আমরা জঙ্গীবাদ ও তার নেত্রী খালেদা জিয়াকে এক চুলও ছাড় দেব না। দখলবাজি সহ্য করব না। এদের বিষয়ে সবাই সতর্ক থাকবেন। বিক্ষোভ সমাবেশে জাসদের সাধারণ সম্পাদক শরীফ নুরুল আম্বিয়া বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার যতদিন চলবে।