২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আগামী সপ্তাহে চালু হচ্ছে ‘সাময়িক এনআইডি’

অনলাইন রিপোর্টার ॥ প্রায় অর্ধকোটি নাগরিকের জন্য ‘পরিচিতি তথ্য বিবরণী’ সেবা আগামী সপ্তাহে চালু করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবারের মধ্যে এ সংক্রান্ত নথিতে সব কমিশনারের স্বাক্ষর নেওয়ার পর আগামী সপ্তাহে সেবাটি চালু হবে। এরআগে মঙ্গলবার প্রধান নির্বাচন কমিশনারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। এর তবে আইনি জটিলতার কারণে ‘সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র’ শব্দটি ব্যবহার না করার পক্ষে ইসি। তাই এর ছাপা কপির উপর ‘সাময়িক পরিচয়পত্র’ লেখা থাকবে না; তবে উল্লেখ থাকবে। সংশ্লিষ্ট নাগরিকের ‘জাতীয় পরিচয়পত্র ইস্যু করা হয়নি’”

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সুলতানুজ্জামান মোঃ সালেহ উদ্দীন।

তিনি বলেন, কোটি ভোটারের সুবিধার্থে নাগরিক পরিচিতি বিবরণী সেবা দেওয়ার বিষয়ে নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এটা দেখতে জাতীয় পরিচয়পত্রের মতো না হলেও এনআইডি এর দৃশ্যমান ফিচারগুলো তারা পাবে।

এই পরিচিতি বিবরণীর মুদ্রিত অনুলিপি স্থায়ী জাতীয় পরিচয়পত্র হাতে না পাওয়া পর্যন্ত প্রয়োজনীয় কাজে ব্যবহার করা যাবে বলে জানান তিনি।

বর্তমানে ৯ কোটি ৬২ লাখেরও বেশি ভোটারের মধ্যে প্রায় অর্ধকোটি নাগরিকের হাতে জাতীয় পরিচয়পত্র নেই। চলমান হালনাগাদে আরও ৭২ লাখ নতুন ভোটার যুক্ত হচ্ছে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সুলতানুজ্জামান জানান, ভোটার হিসেবে নিবন্ধিত হওয়ার পর জাতীয় পরিচয়পত্র না পেলেও ইসির ওয়েবসাইটে গিয়ে নাগরিক পরিচিতির তথ্য বিবরণী সংগ্রহ করতে পারবে নাগরিকরা। এতে নাগরিকের ছবি, পরিচিতি নম্বর, নাম, পিতা-মাতা নাগরিকের নিবন্ধন বিবরণী থাকবে।

‘সাময়িক এনআইডি’ শব্দটি ব্যবহার না করার কারণ হিসেবে নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ জানান, আইনে বলা হয়েছে সব ভোটারকে জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার কথা । ‘সাময়িক জাতীয় পরিচয়পত্র’ দেওয়ার সুযোগও রাখা হয়নি। তাই এই শব্দটি ব্যবহার করা যাচ্ছে না।