১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নেপালে নতুন সংবিধান ॥ সান্ধ্য আইন ভঙ্গ, বিক্ষোভ-সহিংসতা অব্যাহত

অনলাইন ডেস্ক ॥ সান্ধ্য আইন উপেক্ষা করে উত্তরপশ্চিম নেপালের টিকাপুর শহরের বিক্ষুব্ধ বাসিন্দারা বিভিন্ন ভবন ভাংচুর ও কয়েকটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন। প্রস্তাবিত সংবিধান নিয়ে সেখানে ভয়াবহ সহিংসতার পর জারি করা হয় সান্ধ্য আইন।

টিকাপুরের সংখ্যালঘু থারু নৃগোষ্ঠীর সদস্যরাই প্রধানত এসব হামলার লক্ষ্যে পরিণত হয়েছেন বলে নেপালের পুলিশের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার এ খবর জানিয়েছে বিবিসি।

সোমবারের সহিংসতায় সাত পুলিশ ও একটি শিশু নিহতের ঘটনায় থারুদের দায়ী করে তাদের ঘরবাড়িতে হামলা চালানো হয়।

নতুন সংবিধানে নিজেদের আরও অধিকার দাবি করে ওই দিন বিক্ষোভে নেমেছিল থারুরা। পরে বিক্ষোভ সহিংসতায় রূপ নেয়।

কাইলালি জেলার পুলিশের সহপ্রধান রাম কুমার খানাল জানিয়েছেন, প্রতিবাদকারীরা টিকাপুরের রেডিও স্টেশনসহ একটি গেস্ট হাউসেও হামলা চালিয়েছে।

উত্তেজিত জনতা থারু নৃগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত একজন আইনপ্রণেতার বাড়িতেও হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নতুন সংবিধান অনুযায়ী নেপাল সাতটি কেন্দ্রশাসিত রাজ্যে বিভক্ত হবে। এই সংবিধানে পর্যাপ্ত স্বায়ত্তশাসন না দিয়ে তাদের সঙ্গে বৈষম্য করা হয়েছে অভিযোগ তুলে নেপালজুড়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে দেশটির সংখ্যালঘু নৃগোষ্ঠীগুলো।

দেশটির প্রধান চারটি রাজনৈতিক দল অসন্তুষ্ট গোষ্ঠীগুলোর বক্তব্য জানার জন্য তাদের সঙ্গে কথা বলতে আগ্রহী বলেও জানিয়েছে।

রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে চারশ কিলোমিটার দূরের টিকাপুরের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে সেখানে সেনাসহ অতিরিক্ত নিরাপত্তা সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।