২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশ ব্যাংক পরিবেশবান্ধব সবুজ অর্থায়ন করছে ॥ গবর্নর

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংক সামাজিক দায়বোধসম্পন্ন অর্থায়নকে অগ্রাধিকার দিয়ে নীতি-কৌশল প্রণয়ন করছে, যার মধ্যে গ্রামীণ ও নগর অঞ্চলের এমএসএমই, কৃষি এবং নবায়নযোগ্য জ¦ালানির ব্যবহার বাড়ানোর জন্য পরিবেশবান্ধব সবুজ অর্থায়ন রয়েছে। ইন্টিগ্রেটেড অ্যাসোসিয়েশন অব মাইক্রো, স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজেস অব ইন্ডিয়ার (আইঅ্যামএসএমইঅবইন্ডিয়া) উদ্যোগে মঙ্গলবার ভারতের নয়াদিল্লীতে অনুষ্ঠিত ‘ট্রায়িস্ট উইথ দ্যা ভিশনারি লিডারশীপ’ প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ প্রোগ্রামে ভারতের এক্সিম ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মি. যাদুভেন্দ্র মাথুর, ন্যাশনাল স্মল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের (এনএসআইসি) চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মি. রবীন্দ্র নাথ এবং দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের অর্থনৈতিক উন্নয়নে জড়িত আইঅ্যামএসএমইঅবইন্ডিয়া’র চেয়াম্যান মি. রাজিব চাওলা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গবর্নর ড. রহমান বলেন, এ অঞ্চলের অতি ক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র এবং মাঝারি উদ্যোক্তারা (এমএসএমই) কয়েক যুগ ধরে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। তিনি স্মরণ করিয়ে দেন, বাংলাদেশ ব্যাংক সাম্প্রতিক কয়েক বছর ধরে কৃষি ও অকৃষি খাতের এমএসএমই’র মতো অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সমগ্র আর্থিক খাতকে পরিচালিত করছে। মূলত বাংলাদেশ ব্যাংক আর্থিক খাতে সামাজিক দায়বোধ প্রণোদিত অন্তর্ভুক্তিমূলক ও পরিবেশবান্ধব টেকসই প্রাতিষ্ঠানিক অর্থায়নকে উদ্বুদ্ধ করার মাধ্যমে প্রবৃদ্ধি-সহায়ক প্রত্যক্ষ অর্থায়নে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

ড. রহমান এমএসএমই এবং নারী উদ্যোক্তা উন্নয়নে বাংলাদেশ ব্যাংকের গৃহীত নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। তিনি উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে বলেন, গত ২০১০ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত ছয় বছরে বাংলাদেশের ব্যাংকগুলো ২২ লাখ উদ্যোক্তার মাঝে ৩৩৪০ বিলিয়ন টাকা এমএসএমই ঋণ বিতরণ করেছে। এমএসএমই খাতে বাংলাদেশ ব্যাংকের পুন:অর্থায়ন তহবিলের ১৫ শতাংশ নারী উদ্যোক্তার জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর বলেন, এ খাতের কার্যকর উন্নয়ন ঘটাতে আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলার মাধ্যমে আমাদের উদ্যোক্তারা তাদের কার্যক্রমকে দিন দিন শক্তিশালী করছে। তিনি বাংলাদেশের এমএসএমই’র উন্নয়নে আইঅ্যামএসএমইঅবইন্ডিয়া’র সহযোগিতাকে স্বাগত জানান এবং তাদের ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান।