২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অশুভ শক্তি তাড়াতে গির্জায় বৃদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহীর তানোরে ক্রিস্ট্রিয়ান মিশনে ‘অশুভ শক্তি’ তাড়ানোর নামে (অপচিকিৎসা) ফুলমনি নামের ষাটোর্ধ এক আদিবাসী নারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তানোরের মু-ুমালাস্থ ‘সাধুজন মেরী ভিয়ারনী’ গির্জায় মঙ্গলবার গভীর রাতে এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতন করে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহত ফুলমনি মু-ুমালা পৌর এলাকার চুনিয়াপাড়া গ্রামের মৃত ঝাদেম মার্ডির স্ত্রী।

পুলিশ এ ঘটনায় গির্জার শিক্ষিকা বিলাসীসহ ৭ কিশোর-কিশোরীকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলোÑ রতন মার্ডি (২৫), হিউবার্ড ববি মার্ডি (২০), ফাল্গুনী মুরমু (১৪), বর্ষা মার্ডি (১৩), সম্পা মার্ডি (১৪), পিয়াস হেমরম (২৫)। নিহত ফুলমনির মেয়ে আরতি অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে তার মা অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর চিকিৎসা করানোর জন্য গির্জায় নিয়ে আসা হয়। গির্জার ফাদার মাইকেল কোড়াইয়া জানায়, ফুলমনির শরীরে ‘অশুভ শক্তি’ ভর করেছে। এটা তাড়াতে হবে। পরে ওই গির্জার শিক্ষিকা বিলাসীকে নির্দেশ দেয়া হয় ফুলমনির শরীর থেকে ‘অশুভ শক্তি’ দূর করতে। এরপর শুরু হয় ঝাঁড়ফুঁকের নামে গভীর রাত পর্যন্ত শারীরিক নির্যাতন।

বিলাসী তার সঙ্গে আরও ৬ জন কিশোর-কিশোরী রতন, ববি, ফাল্গুনী, বর্ষা ও সম্পাকে নিয়ে ঝাঁড়-ফুঁক শুরু করে। এক পর্যায়ে তারা ৭ জন মিলে ফুলমনিকে মাটিতে ফেলে পা দিয়ে খোঁচাতে থাকে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ ঘটনায় অবস্থা আশঙ্কাজনক হয়ে পড়লে মেয়ে আরতি তাদের হাত থেকে রক্ষা করতে ফুলমনিকে হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য গির্জার ফাদারের কাছে অনুরোধ করেন। কিন্তু তার কোনকিছুই না শুনে সেইভাবেই ‘চিকিৎসা’ (নির্যাতন) চালিয়ে যেতে থাকে। এক পর্যায়ে রাত ১টার দিকে ফুলমনির মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় আরতি পাশের মু-ুমালা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে মৌখিকভাবে অভিযোগ দিলে পুলিশ নির্যাতনের সঙ্গে জড়িতদের আটক করে। তবে ঘটনার মূলহোতা গির্জার ফাদার মাইকেল কোড়াইয়াকে পুলিশ আটক না করায় এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পুলিশ তা নিয়ন্ত্রণ করে।

তানোর থানার পুলিশ জানায়, প্রাথমিক তদন্তে নিহতের শরীরে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত শিক্ষিকাসহ ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে গির্জার ফাদার মাইকেল কোড়াইয়া নিহত ফুলমনিকে নির্যাতনের কথা অস্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান, এখানে শুধু অসুস্থ ব্যক্তিদের চিকিৎসা দেয়া হয়। ফুলমনিকে নির্যাতন করা হয়নি বলে দাবি করেন তিনি।

বুধবার দুপুরে রাজশাহী জেলা সদর সার্কেল (এএসপি) আব্দুর রশিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে গির্জার ফাদার মাইকেল কোড়াইয়াকে গ্রেফতার করা হবে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।