১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বার কাউন্সিল নির্বাচনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের আইনজীবীদের নিয়ন্ত্রক ও তদারক সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সমাপ্ত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সারাদেশে ৭৭টি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলে। সব কেন্দ্রের ফল বার কাউন্সিলে পৌঁছানোর পর সংস্থার চেয়ারম্যান এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম একটি সময় নির্ধারণ করে ফল ঘোষণা করবেন বলে কাউন্সিলের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) নাজমুল আহসান জনকণ্ঠকে জানান। বার কাউন্সিলের ১৪টি সদস্য পদের বিপরীতে এবার ৬১ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংশোধিত ভোটার তালিকা অনুযায়ী ভোটার সংখ্যা ৪৪ হাজার ৩০২ আইনজীবী। প্রতিবারের মতো এবারও আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের দুটি প্যানেলের মধ্যে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়। এবার দেশের সব বারে জয়ের আশা করছেন আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীদের মোর্চা সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ। অন্যদিকে, বিএনপি-জামায়াত সমর্থক আইনজীবীদের সংগঠন জাতীয়তাবাদী ঐক্য পরিষদও জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

তিন বছর পর পর বার কাউন্সিলের নির্বাচন হয়। সারাদেশের আইনজীবীরা মোট ১৪ জনকে ভোটের মাধ্যমে সদস্য নির্বাচিত করেন। এর মধ্যে সাধারণ আসনে সাতজন এবং সাতটি অঞ্চলভিত্তিক আইনজীবী সমিতির সদস্যদের মধ্য থেকে একজন করে আরও সাতজন নির্বাচিত হন। সরাসরি ভোটে নির্বাচিত ১৪ জন পরে নিজেদের মধ্যে ভোটাভুটি করে বার কাউন্সিলের ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচন করেন। আর এ্যাটর্নি জেনারেল পদাধিকারবলে কাউন্সিলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

বুধবার সুপ্রীমকোর্ট প্রাঙ্গণে সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের (সাদা প্যানেল) আহ্বায়ক ব্যারিস্টার এম আমির-উল-ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, সবখানেই সুন্দরভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। আমি ঢাকা বারে গিয়েছিলাম সেখানেও সুন্দরভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। আমি আইনজীবীদের মধ্যে একটা জিনিস লক্ষ্য করেছিÑ তারা পরিবর্তন চায়, তারা প্রশাসনিক উন্নয়ন চায়।

তিনি বলেন, দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে উত্তরণ ঘটানোই চ্যালেঞ্জ। বিভেদ ভুলেই আমরা এগিয়ে যাব উল্লেখ করে তিনি বলেন, বারটাকে গুছিয়ে আইনজীবীদের উন্নয়ন করতে পারব বলে বিশ্বাস করি। আইনজীবীরাই বিচারপতি হন। আশা করি, সেবাদানের মনোবৃত্তি নিয়ে কাজ করতে পারব। জয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সব বারেই জয় লাভ করব আশা করি।

অন্যদিকে, বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের (নীল প্যানেল) নেতা এ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। এভাবে ভোট গণনাও সুষ্ঠুভাবে হলে জয়ের ব্যাপারে আমি আশাবাদী। তিন বলেন, বার কাউন্সিল নিবার্চন নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। অবশেষে নির্বাচন হচ্ছে। এটাই বড় কথা। আইনজীবীরা আইনের শাসনে বিশ্বাস করেন। তারা জাতীয়তাবাদী প্যানেলকে ভোট দেবেন।