২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নেইমারকে রেকর্ড অর্থে দলে নিতে প্রস্তুত ম্যানইউ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ২০১০ বিশ্বকাপ শেষ হওয়ার পর নেইমারকে তাঁবুতে ভেড়াতে আদাজল খেয়ে লেগেছিল ইউরোপের প্রতিষ্ঠিত শক্তিগুলো। সে সময় জোর গুঞ্জন উঠেছিল, ব্রাজিলিয়ান তারকাকে দলে ভিড়িয়ে নিচ্ছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের জনপ্রিয় দল চেলসি। একপর্র্যায়ে এমন অবস্থা হয়েছিল যে, শুধু আর্থিক দিকটা বাদে দ্য ব্লুজে পাড়ি জমানোটা একপ্রকার নিশ্চিতই হয়ে গিয়েছিল নেইমারের। কিন্তু তার সম্ভাব্য ইংল্যান্ড যাত্রায় আপত্তি জানায় ব্রাজিলের প্রায় সমস্ত তারকা ফুটবলার।

এর মধ্যে সর্বকালের সেরা ফুটবলার ‘কালো মানিক’ পেলে, দেশটির প্রেসিডেন্ট, ক্রীড়ামন্ত্রীসহ আরও অনেক সাবেক তারকা ফুটবলার নেইমারকে অনুরোধের সুরে বলেছিলেন, ‘ইংল্যান্ডে যেও না।’ শেষ পর্যন্ত দেশটির শীর্ষ ব্যক্তি এবং সাবেকদের অনুরোধ ফেলতে পারেননি বর্তমান ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক। সে সময় কয়েক সপ্তাহ ধরে চলতে থাকা সমস্ত জল্পনা-কল্পনা আর আলোচনার ইতি টানেন নেইমার এবং তার সাবেক ক্লাব সান্টোস। যে কারণে ২০১০ সালের অক্টোবরে আরও পাঁচ বছরের জন্য ব্রাজিলিয়ান ক্লাবেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু মাত্র আড়াই বছরের ব্যবধানে অনেক নাটকীয়তার অবসান ঘটিয়ে তিনি ২০১৩ সালে নাম লেখান স্প্যানিশ পরাশক্তি বার্সিলোনায়। ক্যাটালানদের হয়ে ইতোমধ্যে দুই মৌসুম খেলেছেন নেইমার। শুধু তাই নয়, দলটির অন্যতম সেরা তারকায় পরিণত হয়েছেন। এমন অবস্থায় চলমান দলবদলের বাজারে জোর গুঞ্জন, তাকে দলে ভিড়িয়ে নিচ্ছে ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এজন্য রেড ডেভিলসরা অর্থের ঝনঝনানি শোনাচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারকে। সময়ের অন্যতম সেরা তারকাকে দলে নিতে ম্যানইউ নাকি বিশ্বরেকর্ড গড়তেও কার্পণ্য করবে না।

অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে নেইমারকে দলে টেনেছে বার্সিলোনা। সান্টোস থেকে তাকে ন্যু-ক্যাম্পে নিয়ে আসার জন্য নানা অনিয়ম করার অভিযোগে বার্সার সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয় সান্ড্রো রোসেলকে। অথচ মাত্র দুই মৌসুম পরই নেইমারের বার্সা ছাড়ার গুঞ্জনে মুখর ইউরোপের ফুটবলাঙ্গন। ২৩ বছর বয়সী এই প্রতিভাবান ফুটবলারকে দলে টানতে রীতিমতো আদাজল খেয়ে লেগেছে ম্যানইউ। ফুটবলের দলবদলে প্রথম ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে বিক্রি হওয়া ফুটবলার গ্যারেথ বেল। টটেনহ্যাম থেকে রিয়াল মাদ্রিদ ওয়েলস তারকাকে বিশ্বরেকর্ড গড়ে দলে ভিড়িয়েছিল। এবার নাকি নেইমারকে এর চেয়েও তিনগুণ বেশি দামে দলে নিতে চায় ম্যানইউ। অর্থাৎ নেইমারের জন্য ৩২৫ মিলিয়ন ইউরো গুনতে রাজি ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এই খবরে পুরো ইংলিশ মিডিয়া তোলপাড়। হওয়ারই কথা। মাত্র ছয় বছর আগেই কাকা এসি মিলান থেকে রিয়ালে নাম লিখিয়েছিলেন ৫৬ মিলিয়ন পাউন্ডে। ৫০ মিলিয়ন পাউন্ডের মাইলফলক ছোঁয়া প্রথম? খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। চার বছরের মাথায় সেটি ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে নিয়ে গেল রিয়ালই। গ্যারেথ বেলকে উড়িয়ে আনল ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগ থেকেই। ফুটবলের দলবদলের গত পাঁচটি বিশ্বরেকর্ডই রিয়ালই গড়েছে রিয়ালই ভেঙেছে। এবার স্পেনের দলটিকে টেক্কা দিয়ে হয়ত আগের সব রেকর্ড ভাঙতে চলেছে ম্যানইউ।

অবশ্য জানা গেছে, নেইমারকে কিছুতেই ছাড়বে না বার্সিলোনা। ৩০০ মিলিয়নের গুঞ্জন চাউর হওয়ার পর এ নিয়ে আরও এক দফা মুখ খুলতে হয়েছে বার্সা সভাপতিকে। কিন্তু নেইমার যদি রাজি থাকেন, তাহলে বার্সার কিছুই করার থাকবে না। ব্রাজিলের পত্রিকা গ্লোবো এস্পোর্টেও মনে করছে নেইমার ইংল্যান্ডে পাড়ি জমাতে পারেন। এই পত্রিকার খবরকে উড়িয়ে দেয়ার উপায় নেই। কারণ এবারের ফুটবল-মৌসুমের শুরুতে তারাই প্রথম জানিয়েছিল, রবার্টো ফিরমিনো জার্মানির হোফেনহেইম থেকে লিভারপুলে যোগ দিতে যাচ্ছেন। পরে সত্যিই লিভারপুলের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন ব্রাজিলের এই এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। ম্যানইউর কোচ লুইস ভ্যান গালের রহস্যময় কথাবার্তাও হাওয়া দিচ্ছে নেইমারের দলবদল সংক্রান্ত গুঞ্জনের পালে। এই ডাচ্ কোচের একটি মন্তব্য আবার আলোচনায় উঠে এসেছে।