২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বুড়িগঙ্গা নদীর ওপর জরিপ চালানোর নির্দেশ হাইকোর্টের

  • ৬ দিনের মধ্যে রিপোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চরাঞ্চলসহ বুড়িগঙ্গা নদীর ওপর জরিপ চালানোর নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। একই সঙ্গে নদীতে সীমানা পিলার স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বিচারপতি মির্জা হোসাইন হায়দার ও বিচারপতি কেএএম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দিয়েছে। আগামী ৬০ দিনের মধ্যে জরিপ কাজ চালিয়ে তার প্রতিবেদন আদালতে জমা দিতে বলা হয়েছে নির্দেশনায়। ভূমি অধিদফতরের মহাপরিচালককে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পুলিশের আইজি, বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ, ডিএমপি কমিশনার, ঢাকা জেলা প্রশাসককে এ কাজে সহযোগিতা করতেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ঢাকাকে ঘিরে রাখা চারটি নদীর বিষয়ে জরিপ কাজ চালানোর নির্দেশনা চেয়ে এর আগে একটি রিট দায়ের করা হয়েছিল। এরপর বুধবার বুড়িগঙ্গার চরাঞ্চলকেও জরিপ কাজের অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশনা চেয়ে একটি সম্পূরক আবেদন করা হয়। এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এই নির্দেশ এলো। রিটের পক্ষে শুনানি করেন এ্যাডভোকেট মনজিল মোরশেদ।

আদেশের পর রিটকারী আইনজীবী মনজিল মোরশেদ সাংবাদিকদের বলেন, ২০০৯ সালের আদেশের পর ওই আদেশ বাস্তবায়ন না করায় বুড়িগঙ্গা নদীর অবৈধ দখলদাররা দখল করে যাচ্ছে। অজানা কারণে ভূমি জরিপ অধিদফতরের পক্ষ থেকে জরিপ করা হচ্ছে না। তাই আজ এই আবেদন করেছিলাম। এর আগে ২০০৯ সালের ২৫ জুন হাইকোর্টে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলের ওপর জরিপ করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছিল। সঙ্গে সঙ্গে নদীতে সীমানা পিলার স্থাপনের নির্দেশ দেয় আদালত।