২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাইবান্দায় নিলামের ডাকের টাকা ফেরত চেয়ে আবেদন

গাইবান্দায় নিলামের ডাকের টাকা ফেরত চেয়ে আবেদন

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা॥ সাঘাটা উপজেলার চরগোবিন্দপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবন নিলাম করেও ভাঙনের কবল থেকে শেষ রক্ষা হলনা। নিলাম প্রদানের পরদিনই নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে ভবনটি। ফলে বিপাকে পড়েছে নিলামের ক্রেতা ওই এলাকার ইউপি সদস্য আব্দুল কুদ্দুস।

জানা গেছে, বন্যার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গেই নদী ভাঙনের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার বেশ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নদী ভাঙনের কবলে পড়েছে। এর মধ্যে সাঘাটার চরগোবিন্দপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটি মারাত্মকভাবে বিপন্ন হয়ে পড়ে। ফলে জরুরী ভিত্তিতে বিদ্যালয় ভবনটি অপসারণের জন্য ২৫ আগষ্ট নিলাম ডাকের ব্যবস্থা করা হয়। ওইদিনই হলদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল কদ্দুসকে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসাবে ইউএনও অফিস থেকে কার্যাদেশ প্রদান করা হয়। কার্যাদেশে সাতদিনের মধ্যে বিদ্যালয় ভবনটি ভেঙে নেয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু পরদিন ২৬ আগষ্ট বিদ্যালয় ভবনটি অপসারণের জন্য নিলাম গ্রহনকারী শ্রমিক নিয়ে গেলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ভবনটি ভাঙতে বাঁধা প্রদান করে। ফলে শ্রমিক নিয়ে নিলামকারি ভবনটি না ভাঙতে না পেরে ফিরে আসতে বাধ্য হয়। ওইদিনই দুপুরে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় ভাঙনের তীব্রতা বেড়ে ভবনটি নদী গর্ভে বিলিন হয়ে যায়। ফলে নিলাম গ্রহণকারী আব্দুল কুদ্দুস নিলাম ডাকের টাকা ফেরত চেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেছেন।