২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সালমাদের ঘাম ঝরানো অনুশীলন

সালমাদের ঘাম ঝরানো অনুশীলন
  • বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেটারদের পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা। কিন্তু এ সফর নিয়ে দিন দিন শঙ্কা বেড়েই চলেছে। বৃহস্পতিবারও যেমন পাকিস্তানে এক অভিনেত্রীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে! এমন অবস্থায় পাকিস্তান সফরে গেলে মহিলা ক্রিকেটারদের জীবনের ঝুঁকিতো থাকছেই, সেই সঙ্গে এ ঝুঁকির ভয়ে ক্রিকেট খেলাটাও ঠিকমতো হবে না। তাতে সফরের কোন মানেই থাকবে না। এরপরও শনিবারের মধ্যেই জানা যাবে, পাকিস্তানে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল কবে পাঠানো হবে।

মহিলা ক্রিকেটারদের পাকিস্তান সফর নিয়ে যে শঙ্কা আছে, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসই। তিনি বলেছেন, ‘ওয়াসিম আকরামের ওপর হামলা বিচ্ছিন্ন ঘটনা হলেও আমরা আমাদের মেয়েদেও কোনভাবেই সঙ্কটের মধ্যে ঠেলে দেব না।’ বোঝাই যাচ্ছে, বিসিবিও শঙ্কিত। এরপর বলেন, ‘নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দলের প্রতিবেদনের ভিত্তিতে সবকিছু চূড়ান্ত করা হবে। এ মাসের মাঝামাঝি সময় নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল আমরা পাঠাব। তবে সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিলে তাহলে পাকিস্তানে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক দল যাবে।’ পিসিবির প্রস্তাব অনুযায়ী, আসন্ন সফরে বাংলাদেশ মহিলা দলের খেলাগুলো হওয়ার কথা করাচীতে। কিন্তু বিসিবি পাল্টা প্রস্তাব দিয়েছে, করাচীর পরিবর্তে ম্যাচগুলো লাহোরে আয়োজন করার জন্য। ৩১ আগস্ট থেকে ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সফরে পাকিস্তান মহিলা দলের সঙ্গে তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি২০ ম্যাচ খেলার কথা সালমা বাহিনীর। জালাল ইউনুস বলেন, ‘আমরা বলেছি, সব ম্যাচ লাহোওে খেলতে চাই। কারণ করাচীর চেয়ে লাহোর আমাদের কাছে বেশি নিরাপদ মনে হয়েছে। এর আগে ছেলেদের দলের পাকিস্তান সফর নিয়ে আলোচনার সময়ও আমরা লাহোরে খেলতে চেয়েছিলাম।’ ওয়াসিম আকরামের পর এক মন্ত্রীর ওপর হামলা, এরপর এক অভিনেত্রীকে হত্যা। এমন অবস্থায় পাকিস্তান সফর শঙ্কাতেই পড়ে গেছে।