১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিধ্বস্ত ঘাট ৪ দিনেও মেরামত হয়নি

  • ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা, ২৭ আগস্ট ॥ ভোলার ইলিশা বিশ্ব রোডের নতুন ফেরিঘাটটি মেঘনা নদীর ভাঙ্গনে বিধ্বস্ত হওয়ার ৪ দিন পরও বিআইডব্লিউটিএ মেরামত করতে না পারায় ভোলা-লক্ষ্মীপুর নৌরুটের ফেরিচলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ভোলার ইলিশা ফেরিঘাট ও লক্ষ্মীপুরের মজু চৌধুরী ঘাট এলাকায় কয়েক শত যানবাহন আটকা পড়েছে। চরম দুর্ভোগে পড়েছে যাত্রীসহ পণ্যবাহী ট্রাকের চালক ও শ্রমিকরা। লোকসানের মুখে পড়েছে ব্যবসায়ীরা। অভিযোগ উঠেছে, সংশ্লিষ্টরা যথাযথভাবে কাজ না করায় বার বার এ ঘাটটি ভাঙ্গনের মুখে পড়ছে এবং ফেরিঘাট সংস্কারের কাজ দ্রুত করা হচ্ছে না।

স্থানীয় সূত্রগুলো জানিয়েছে, উজান থেকে ধেয়ে আসার পানির তোড়ে ও মেঘনা নদীর অব্যাহত ভাঙ্গনের মুখে গত ২৬ জুলাই ভোলা-লক্ষ্মীপুর মহাসড়ক বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ায় ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ১৫ দিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর বিআইডিব্লিউটিএ ইলিশা বিশ্ব রোডের মাথায় দ্বিতীয় ফেরিঘাট নির্মাণ করে। কিন্তু ২ সপ্তাহ যেতে না যেতেই গত ২৪ আগস্ট আবার ভাঙ্গনের মুখে পড়ে বিশ্ব রোডের মাথার নতুন ফেরিঘাটটি। ফেরিঘাটের এপ্রোচ রোডের মাথার পাইলিং এবং গ্যাংওয়ের নিচের মাটি ধসে পড়ে। এতে ভোলা-লক্ষ্মীপুর রুটের ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এর ফলে দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের ২১ জেলার সঙ্গে বন্দর নগরী চট্টগ্রামের সহজ যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেলে যাত্রীসহ ব্যবসায়ীরা চরম বিপাকে পড়ে। বিশেষ করে কাঁচা মাল ব্যবসায়ীরা সবচাইতে বিপদে পড়ে। ফেরিঘাটে যাত্রীবাহী বাসগুলো ফিরে গেলেও পণ্যবাহী ট্রাকগুলোর শ্রমিকরা ফেরি চালু হওয়ার অপেক্ষায় চরম দুর্ভোগে দিনকাটাচ্ছে। অনেক ট্রাক চালক ৪/৫ দিন বসে থাকায় তাদের খাবারের টাকাও শেষ হয়ে গেছে। তাদের টয়লেট করতে সমস্যা পোহাতে হয়।

এদিকে ফেরিচলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ঘাটের বিভিন্ন দোকানি ব্যবসায়ীরাও ক্ষতি সম্মুখীন হচ্ছেন। এলাকাবাসী অভিযোগ করেন, পানি উন্নয়ন বোর্ড ভাঙ্গন রোধের কাজ ধীরগতিতে করছে। এদিকে জেলা প্রশাসক মোঃ সেলিম রেজা বলেন, এ ফেরিঘাটটি দ্রুত চালু করার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ড সড়ক ও এলজিইডিসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে চিঠি দিয়েছি। তবে বিআইডব্লিউটিএ’র সহকারী প্রকৌশলী মোঃ মতিউল ইসলাম জানান, ঘাটটি ৪ থেকে ৫ দিনের মধ্যে চালু করা হবে। এবং ইলিশা ফেরিঘাটটি যাতে বার বার ভাঙ্গনের মুখে না পড়ে সে জন্য স্থায়ীভাবে ঘাটটি স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হবে।

টঙ্গীবাড়িতে অবৈধ বহুতল ভবন উচ্ছেদ

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ টঙ্গীবাড়ি উপজেলার সিদ্ধেশ্বরী বাজারের সরকারী খাস জমিতে অবৈধভাবে সদ্য নির্মিত বহুতল ভবন উচ্ছেদ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা হতে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন টঙ্গীবাড়ি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বীথি দেবনাথ। এর আগে সরকারী নিয়ম নীতির কোন তোয়াক্কা না করে টঙ্গীবাড়ি-হাসাইল সংযোগ খালের বিস্তৃর্ণ অংশ দখল করে এই ভবনটি নিমার্ণ করা হয়। টঙ্গীবাড়ি উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহম্মদ দেওয়ান এই অবৈধ ভবন নিমার্ণ করছিলেন। ইতোমধ্যে ভবনটির এক তলার কাজ শেষ হয়ে দ্বিতীয় তলার কাজ চলছিল। ইউএনও অফিস জানায়, অবৈধ স্থাপনাটি নির্মাণ বন্ধে দফায় দফায় উপজেলা প্রশাসন হতে চিঠি দিয়ে নিষেধ করা হয়েছিল। কিন্তু তা তোয়ক্কা না করে প্রায় ছয় মাস ধরে স্থাপনাটি নির্মাণ করেছিল।

সোনারগাঁওয়ে আট দোকান ভস্মীভূত

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ২৭ আগস্ট ॥ সোনারগাঁও পৌরসভার আদমপুর বাজারের টিনসেড মার্কেটে অগ্নিকা-ের ঘটনা ঘটেছে। এতে আট দোকান ভস্মীভূত হয়েছে। ঢাকার ডেমরা ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানায়, ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ।