২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারীতে নাশকতা মামলায় জামায়াত-বিএনপির ২৩ কর্মী কারাগারে

স্টাফ রির্পোটার, নীলফামারী ॥ দশম সংসদ নির্বাচনে নীলফামারীর ডিমলার একটি ভোট কেন্দ্রে নাশকতা ঘটনার মামলায় জামায়াত ও বিএনপির ২৩ কর্মী আটক হয়েছে দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর বৃহস্পতিবার দুপুরে নীলফামারীর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চাইলে বিচারক একেএম জাহাঙ্গীর আলম তাদের জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আটককৃতরা হলেনÑ জামায়াত কর্মী লুৎফর রহমান, সাত্তার আলী, মহির উদ্দিন, জুয়েল, আমজাদ হোসেন, জিয়া, আফছার আলী, রশিদুল ইসলাম, কালা মিয়া, হারুন অর রশিদ, শরিফুল ইসলাম ছবদুল, জসিয়ার রহমান, হালিমুর রহমান, সহিমুদ্দিন, ও মিনারুল, বিএনপি কর্মী ঘটো, সোবহান আলী, আব্দুর রহিম, শরিফুল ইসলাম কাল্টা আমিনুর রহমান, আলম, শাহজাহান আলী, রাসেল ইসলাম। আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির দশম সংসদ নির্বাচনে নীলফামারী ডিমলা উপজেলার গয়াবাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিণ গয়াবাড়ি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে জামায়াত-বিএনপির কর্মীরা ব্যাপক নাশকতা চালিয়ে ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং ও সহকারী প্রিসাইডিং এবং পোলিং কর্মকর্তার আহত করে ব্যালোট পেপার ছিনতাই, অগ্নিসংযোগ করে।

থানায় ধর্ষিত ছাত্রীর গর্ভপাত

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী, ২৭ আগস্ট ॥ পটুয়াখালীতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেনের ধর্ষণের শিকার অন্তঃসত্ত্বা পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীর গর্ভপাতের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতে পটুয়াখালী সদর থানায় তার গর্ভপাতের ঘটনা ঘটে। পরে তাকে পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে ঐ শিক্ষার্থী পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ দিকে সদর থানায় শিক্ষার্থীর গর্ভপাতের ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় ঐ শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ জানায়, গর্ভপাত হওয়া শিশুটির ময়নাতদন্ত করা হবে। এ দিকে অভিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেনকে বৃহস্পতিবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।