২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সরকারী ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে ৭ প্রস্তাব অনুমোদন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ জ্বালানি তেল আমদানি, বৈদ্যুতিক খুঁটি ও সরঞ্জাম ক্রয়সহ ৭টি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে ‘সরকারী ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি’।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, চলতি পঞ্জিকা বছরের জুলাই-ডিসেম্বর প্রান্তিকের জন্য ‘কুয়েত পেট্রোলিয়াম করপোরেশন’ থেকে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) মেয়াদী চুক্তির আওতায় ৫ লাখ ৭০ হাজার টন (৪ লাখ ৫০ হাজার টন ডিজেল ও ১ লাখ ২০ হাজার টন জেট এ-১) জ্বালানি তেল ক্রয়ের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে প্রতি ব্যারেল ডিজেল (গ্যাস অয়েল) ও জেট এ-১-এর বিপরীতে প্রিমিয়াম ধরা হয়েছে যথাক্রমে ৪ দশমিক ৪৯ ডলার এবং ৫ দশমিক ৪৯ ডলার।

ক্রয় প্রস্তাবের সার-সংক্ষেপ অনুযায়ী দুই ধরনের জ্বালানির জন্য মোট ব্যয় হবে ৩২ কোটি ৪৩ লাখ ৩৭ হাজার ডলার (২ হাজার ৫৪২ কোটি ৮১ লাখ টাকা)।

তিনি জানান, ঢাকা ওয়াসার ‘দাশেরকান্দি পয়ঃশোধনাগার প্রকল্প’-এর জন্য চীনা রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান ‘হাইড্রো চায়না করপোরেশন লিমিটেড’-কে ঠিকাদার হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ২৮ কোটি ডলার।

অতিরিক্ত সচিব জানান, বৈঠকে ১৮টি নদীর ৪৯ হাজার ২৫০ কিলোমিটার (৮ হাজার মিটার থেকে ৫৭ হাজার ২৫০ কিলোমিটার পর্যন্ত) জায়গা পুনর্খনন এবং একই নদীতে ৮টি ভেল্ট ড্রেনেজ রেগুলেটর নির্মাণের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১২৫ কোটি ৪০ লাখ টাকা।

পল্লী বিদ্যুতায়ন সম্প্রসারণের মাধ্যমে ১৮ লাখ গ্রাহক সংযোগ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় দুটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ৯৪ কোটি ৭৪ লাখ টাকা।

একই প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন সাইজের ২ লাখ ১৪ হাজার ১২২টি বৈদ্যুতিক খুঁটি (এসপিসি পোল) ক্রয়ের অপর একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ৪৯২ কোটি ২৯ লাখ টাকা।

অন্য প্রস্তাবের মধ্যে ‘কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি’ (কাফকো) থেকে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার ক্রয়ের একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে। প্রতি টন সার ৩১৩ দশমিক ২৫ ডলার হিসেবে এতে ব্যয় হবে ৭৩ কোটি ৬৭ লাখ টাকা।