১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবি ঐক্য ন্যাপের

অনলাইন ডেস্ক ॥ গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি জনজীবনে সংকট সৃষ্টি করবে বলে মন্তব্য করেছেন ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পঙ্কজ ভট্টাচার্য ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আসাদুল্লাহ তারেক।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে তারা এ মন্তব্য করেন। ঐক্য ন্যাপের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বলেন, বর্তমানে বিশ্ববাজারে তেলের মূল্য ক্রমগত হ্রাস পেলেও এবং দেশে গ্যাসের মজুদ যথেষ্ট থাকলেও হঠাৎ গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়ানো অযৌক্তিক। এমনিতেই নিত্যপণ্যের দাম মানুষের নাগালের বাইরে, তার ওপর এই মূল্যবৃদ্ধি মরার ওপর প্রচণ্ড চাপ হয়ে উঠবে।

তারা বলেন, এই মূল্য বৃদ্ধির ফলে যানবাহনে ভাড়া ও পণ্য পরিবহন খরচ বৃদ্ধির জন্য নিত্যপণ্যের দাম ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাবে, একই সঙ্গে বৃদ্ধি পাবে বাড়ি ভাড়াও।

জনগণের এসব কষ্ট বিবেচনায় ঐক্য ন্যাপ নেতারা গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির এ সিদ্ধান্ত বাতিল করতে সরকারের প্রতি জোর দাবি জানান।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) বৃহস্পতিবার গ্যাস-বিদ্যুতের মূল বৃদ্ধির এ সিদ্ধান্ত নেয়। বিদ্যুতের দাম গড়ে ২ দশমিক ৯৩ শতাংশ হারে আর গ্যাসের দাম ২৬ দশমিক ২৯ শতাংশ হারে বাড়িয়েছে সরকার। এতে গ্যাস ব্যবহারে এক চুলার কানেকশনে ৬০০ টাকা, আর দুই চুলার কানেকশন ৬৫০ টাকা হবে। যে দর আগে ছিল যথাক্রমে ৪০০ টাকা ও ৪৫০ টাকা। এছাড়া বিদ্যুতের ক্ষেত্রে ১ থেকে ৫০ ইউনিট পর্যন্ত ইউনিট প্রতি আগের দর অপরিবর্তিত রয়েছে। তবে ৫০ থেকে ৭৯ ইউনিট খরচে ইউনিট প্রতি ২৭ পয়সা বেড়ে ৩ দশমিক ৫৩ টাকা থেকে ৩ দশমিক ৮০ টাকা করা হয়েছে। মূল্যবৃদ্ধির এই সিদ্ধান্ত ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হবে।